‘প্রয়োজন ছাত্র-শিক্ষক-অভিভাবকের ত্রিমাত্রিক  সম্পর্ক’

 ‘প্রয়োজন ছাত্র-শিক্ষক-অভিভাবকের ত্রিমাত্রিক  সম্পর্ক’

  • ক্যাম্পাস ডেস্ক

ছাত্র-শিক্ষক-অভিভাবক এই ত্রি-মাত্রিক সম্পর্ককে আরো বেশী শক্তিশালী ও দৃঢ় করার লক্ষ্যে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি ৬ এপ্রিল (শুক্রবার) আশুলিয়ায় বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থায়ী ক্যাম্পাসে স্বাধীনতা  মিলনায়তনে শিক্ষার্থী-শিক্ষক ও অভিভাবকদের অংশগ্রহণে ‘প্যারেন্টস ডে’ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। এতে  প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির (ডিআইইউ) ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান ড. মো. সবুর খান। বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য প্রফেসর ড. এস এম মাহবুব উল হকের  সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন মানবিক ও সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক এ এম এম হামিদুর রহমান, স্থায়ী ক্যাম্পাসের ডিন প্রফেসর ড. মোস্তফা কামাল ও  এইচআরডিআই এর ডিন প্রফেসর ড. ফরিদ এ সোবহানী। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচালক (স্টুডেন্ট অ্যাফেয়ার্স) সৈয়দ মিজানুর রহমান রাজু।

দেশপ্রেমের চেতনাকে বুকে ধারন করে উজ্জ্বল ভবিষ্যত গঠনের দৃঢ় প্রত্যয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিশাল সবুজ মাঠে শিক্ষার্থী, শিক্ষক ও অভিভাবকদের সমবেত জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনের মধ্য দিয়ে দিনব্যাপী কর্মসূচী শুরু হয়। অভিভাবকদের উপস্থিতিতে পারিবারিক ও সামাজিক দায়বদ্ধতার জায়গা থেকে শিক্ষার্থীরা ‘আজীবন মা-বাবার সাথে থাকার এবং বয়স্কদের আধিকার ও সেবা প্রদানের আনুষ্ঠানিক শপথ গ্রহণ করে এবং আনুগত্য ও কৃতজ্ঞতার প্রতীক স্বরূপ নিজ নিজ পিতা-মাতার পা ধুইয়ে দেয়, বাবা-মা ও তাদের সন্তানদের গভীর মমতায় বুকে জড়িয়ে নেন।এ সময় অনেক শিক্ষার্থীকে বাবা-মায়ের পদচুম্বন করতেও দেখা যায়। অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের অফিস অব দি ডাইরেক্টরেট অব স্টুডেন্ট অ্যাফেয়ার্সের (ডিএসএ) আয়োজনে প্রায় ৩০০০ শিক্ষার্থী, শিক্ষক ও অভিভাবক অংশগ্রহণ করে।

প্যারেন্টস ডে-তে শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে বক্তব্য রাখছেন ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান ড. মো. সবুর খান। ছবি: নাদিম চৌধুরী

প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান ড. মো. সবুর খান বলেন, একমাত্র ছাত্র-শিক্ষক-অভিভাবক এই ত্রি-মাত্রিক সম্পর্কের শক্তিশালী ও দৃঢ় বন্ধনের মাধ্যমেই উন্নত জীবন ও সফল ক্যারিয়ার গড়ে তোলা সম্ভব  এবং সে কারণেই শিক্ষার্থীদের নৈতিক ও মানবিক মূল্যবোধ উন্নয়নে এ ত্রি-মাত্রিক সম্পর্ককে আরো দৃঢ় করার আহ্বান জানান তিনি।

তিনি শিক্ষার্থীদের বিশ্ববিদ্যালয়ের অবকাঠামোগত সুযোগ-সুবিধা, সুসজ্জিত ক্রীড়াঙ্গন ও সবুজ পরিবেশকে কাজে লাগিয়ে শারীরিক ও মানসিকভাবে বেড়ে উঠার পাশাপাশি মা-বাবার প্রতি দায়িত্বপালনে অধিক যত্নশীল হওয়ার আহ্বান জানান। তিনি আরো বলেন, ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির মূল লক্ষ্য হচ্ছে তথ্যপ্রযুক্তি জ্ঞানে দক্ষ এবং ক্রীড়ামনস্ক দক্ষমানব সম্পদ তৈরী করে শতভাগ শিক্ষার্থীর কর্মসংস্থান নিশ্চিত করা এবং সে চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য প্রফেসর ড. এস এম মাহবুব উল হক মজুমদার বলেন, পারিবারিকভাবে একজন সন্তানকে সঠিক পথে পরিচালিত করতে বাবা পাইলটের ভূমিকা এবং মা নেভিগেটরের ভূমিকা পালন করে থাকেন। তাই অভিভাবকদের খেয়াল রাখতে হবে যেন তাদের সন্তানরা বিপথে চলে না যায়। ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি শুরু থেকেই শিক্ষার্থীদের যুগোপযোগী শিক্ষার পাশাপাশি মানবিক মূল্যবোধের বিকাশ ঘটাতে এবং উন্নত ভবিষ্যত গড়ে তুলতে বলিষ্ঠ ভূমিকা রেখে আসছে। তিনি শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের আরও বেশী সচেতন ও বন্ধুসুলভ হওয়ার পরামর্শ দেন। সহপাঠীদেরকেও নিজেদের মধ্যে ভ্রাতৃত্ব ও পারষ্পরিক সহযোগীতা বজায় রাখার আহ্বান জানান।

Leave a Reply