৩০ হাজার কণ্ঠে দুই সংগীত মহীরুহকে স্মরণ

৩০ হাজার কণ্ঠে দুই সংগীত মহীরুহকে স্মরণ

  • ক্যাম্পাস ডেস্ক

বাংলা ব্যান্ড সংগীতের কিংবদন্তী কণ্ঠশিল্পী আইয়ুব বাচ্চু ও নন্দিত সংগীতজ্ঞ আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুলের গান একসঙ্গে গেয়ে তাঁদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ৩০ হাজার শিক্ষার্থী, শিক্ষক ও কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ। গত ২৮ জানুয়ারি বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থায়ী ক্যাম্পাস আশুলিয়ায় ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ১৭তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে এ বিশেষ আয়োজন অনুষ্ঠিত হয়। সংগীত জগতের সদ্য প্রয়াত এই দুই নক্ষত্রকে শ্রদ্ধা জানানোর এই অভিনব আয়োজনে উপস্থিত ছিলেন কণ্ঠশিল্পী মেহরিন, দিনাত জাহান মুন্নী, গীতিকার কবির বকুলসহ আরো অনেকে। আয়োজনটি পরিচালনা করেন ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির স্টুডেন্ট অ্যাফেয়ার্সের পরিচালক সৈয়দ মিজানুর রহমান।

অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়া ৩০ হাজার শিক্ষার্থী প্রথমে কণ্ঠে তোলেন আইয়ুব বাচ্চুর ‘চলো বদলে যাই’ শিরোনামের গানটি। এরপর গীতিকার, সুরকার ও সংগীত পরিচালক আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুলের তৈরি ‘ সেই রেল লাইনের ধারে মেঠো পথটার পাড়ে দাঁড়িয়ে’ গানটি গেয়ে শোনান বিশ্ববিদ্যালয়ের উপস্থিত শিক্ষার্থীরা। এসময় উপস্থিত ২০০ শিক্ষার্থীর হাতে ছিল গিটার, ভায়োলিন আর ৩০ হাজার কণ্ঠে ছিল আবেগের সুর।

গান শেষে দুই সংগীতজ্ঞের জন্য এক মিনিট নীরবতা পালন করেন উপস্থিত সকলে ।

উপস্থিত ২০০ শিক্ষার্থীর হাতে ছিল গিটার।

আয়োজনটি সম্পর্কে টেক্সটাইল প্রকৌশল বিভাগের শিক্ষার্থী মীর মহিব চৌধুরী বলেন, ‘সম্প্রতি আইয়ুব বাচ্চু ও আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল আমাদের ছেড়ে চলে গেছেন। এই দুই মহান শিল্পীকে একটু ভিন্নভাবে সম্মান জানাতেই আমরা এ আয়োজন করেছি। তাঁরা যতদিন বেঁচে ছিলেন ততদিন আমাদেরকে ভিন্ন স্বাদের গান উপহার দিয়ে গেছেন। তাই আমরাও তাদেরকে শ্রদ্ধা জানানোর জন্য ভিন্ন কিছু করার চেষ্টা করেছি।’

গাইছেন মেহরীন।

ব্যাতিক্রমী এ আয়োজনের বাইরেও বিশ্ববিদ্যালয়টির ১৭তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে নানা রকমের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান চলে দিনব্যাপী। ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির কালচারাল ক্লাবের সদস্যরা নাচ, গান, অভিনয়, আবৃত্তিসহ নানা পরিবেশনার মাধ্যমে মুগ্ধ করেন সবাইকে।

গাইছেন দিনাত জাহান মুন্নী।

উল্লেখ্য, গত বছর ১৮ অক্টোবর নিজ বাসায় মৃত্যুবরণ করেন জনপ্রিয় ব্যান্ড শিল্পী ও এলআরবি ব্যান্ডের প্রধান আইয়ুব বাচ্চু। আর চলতি মাসের ২২ জানুয়ারি না ফেরার দেশে চলে যান বিশিষ্ট সংগীত পরিচালক ও মুক্তিযোদ্ধা আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল।

Leave a Reply