ড্যাফেডিল বিশ্ববিদ্যালয়ে এয়ার রোভার স্কাউটের দীক্ষা ক্যাম্প অনুষ্ঠিত

ড্যাফেডিল বিশ্ববিদ্যালয়ে এয়ার রোভার স্কাউটের দীক্ষা ক্যাম্প অনুষ্ঠিত

  • ক্যাম্পাস ডেস্ক

ড্যাফেডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি এয়ার রোভার ইউনিটের তিন দিনব্যাপী রোভার স্কাউটদের ৬ষ্ঠ প্রশিক্ষণ ও দীক্ষা ক্যাম্প ২৪-২৬ মে ২০১৭ আশুলিয়ায় বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থায়ী ক্যাম্পাসে অনুষ্ঠিত হয়।  দক্ষতা প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে  উপস্থিত ছিলেন জাতীয় উপ-কমিশনার (প্রশিক্ষণ) জামিল আহমেদ। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় উপ-কমিশনার আরিফুজ্জামান, বাংলাদেশ স্কাউট এয়ার অঞ্চলের সাধারণ সম্পাদক ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট শাহ আলম, আঞ্চলিক উপ পরিচালক মাহফুজা খানম ও ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ভিজিটিং প্রফেসর ড. নেইল পি বালবা।

ড্যাফেডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি এয়ার রোভার ইউনিটের কোষাধ্যক্ষ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ঊর্ধ্বতন সহকারি পরিচালক (জনসংযোগ) মো. আনোয়ার হাবিব কাজলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন গার্লস ইন রোভার ইউনিট এর আর এস এল ফারহানা রহমান সেতু (পি আর এস), আর এস এল সাইফুল ইসলাম খান ও প্রোগ্রাম চীফ এস এম সালাউদ্দিন মোরসালিন। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন রোভার মেট নূসরাত জাহান। এবারের ক্যাম্পে বিশ^বিদ্যালয় ইউনিটের ২৪জন রোভার ও ৬ জন গার্লস ইন রোভার ও সারা দেশ থেকে ১০ জন স্বেচ্ছাসেবক রোভার অংশগ্রহণ করে।

এর আগে ২৪ মে ২০১৭ তারিখে ঢাকা জেলা রোভার স্কাউটের কমিশনার ও সরকারি তিতুমীর কলেজের উপাধ্যক্ষ প্রফেসর এনামুল হক খান প্রধান অতিথি হিসেবে এ প্রশিক্ষণ ও দীক্ষা ক্যাম্পের উদ্বোধন করেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে জাতীয় উপ-কমিশনার (প্রশিক্ষণ) জামিল আহমেদ বলেন, দীক্ষা প্রদান অনুষ্ঠান স্কাউটদের জীবনে অত্যন্ত  গুরুত্বপূর্ণ একটি অধ্যায়। এ ধরনের প্রশিক্ষণ তাদের আত্মশুদ্ধির মাধ্যমে পরিশীলিত হয়ে মনে প্রাণে স্কাউট আন্দোলনে উজ্জীবিত হতে সহায়তা করে। তিনি রোভারদের বিপি’র আদর্শে অনুপ্রানিত হয়ে সবার বাসযোগ্য একটি সুন্দর পৃথিবী গড়ে তোলার লক্ষ্যে কাজ করার আহ্বান জানান। তিনি সাম্প্রতিক সময়ে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি এয়ার রোভার ইউনিটের বিভিন্ন কর্মকাণ্ডের ভূয়সী প্রশংসা করেন এবং আগামী দিনগুলিতে এর ধারা অব্যাহত রাখার আহ্বান জানান। তিনি আরো বলেন, ড্যাফেডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি রোভার স্কাউট আন্দোলনে সম্পৃক্ত হয়ে এক অনন্য উদাহরণ সৃষ্টি করেছে যা বাংলাদেশের অন্যান্য বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর জন্য অনুকরণীয় হবে।

সভাপতির বক্তব্যে মো. অনোয়ার হাবিব কাজল বলেন, এ ধরনের প্রশিক্ষণের অভিজ্ঞতা স্কাউটদের মধ্যে গভীর মিথষ্ক্রিয়তা তৈরীর পাশাপাশি তাদের পেশাগত দক্ষতা বৃদ্ধি, উচুঁ নৈতিক মান ও উন্নত চরিত্র গঠনের মাধ্যমে দেশ ও জাতির বৃহত্তর কল্যণ সাধন করতে পারে। তিনি এ দীক্ষা ক্যাম্পে অর্জিত অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে আরো বেশী সক্রিয়ভাবে স্কাউট আন্দোলনে সম্পৃক্ত হওয়ার পাশাপাশি উন্নত জীবন গড়ে তোলার পরামর্শ দেন।favicon59-4

Leave a Reply