প্রথম অংশ নিয়েই বাজিমাৎ

প্রথম অংশ নিয়েই বাজিমাৎ

  • ক্যাম্পাস ডেস্ক

ভারতের ইম্পেরিয়াল সোসাইটি অব ইনোভেটিভ ইঞ্জিনিয়ার্স আয়োজিত ফর্মুলা হাইব্রিড প্রতিযোগিতা ‘হাইব্রিড ভেহিকেল চ্যালেঞ্জ ২০১৭’-তে প্রথমবারের মতো অংশ নেয় আহসানউল্লাহ বিজ্ঞান প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের দল ‘টিম স্বপ্নযান’। ইম্পেরিয়াল সোসাইটি অব ইনোভেটিভ ইঞ্জিনিয়ার্স প্রতি বছর ভারতে এটি আয়োজন করে থাকে। এটি ভারতে সবচেয়ে জনপ্রিয় গবেষণা প্রকাশনা সংস্থা এবং মোটরস্পোর্ট ইঞ্জিনিয়ারিং ইনস্টিটিউট।

‘হোম অব এফ-১ গ্র্যাঁ প্রি ইন্ডিয়া’ নামে পরিচিত এই প্রতিযোগিতায় সেরা আগামীর গাড়ি ও গো গ্রিন অ্যাওয়ার্ড পায় টিম স্বপ্নযান। ৭৪টি দলের সঙ্গে প্রতিযোগিতা করে এই সম্মান অর্জন করেন তারা। আহসানউল্লাহ বিশ্ববিদ্যালয়ের মেকানিক্যাল ও প্রোডাকশন ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের এই শিক্ষার্থীরাই বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো তৈরি করেছে হাইব্রিড কার ‘স্বপ্নযান’। ৪ ফুট লম্বা ও ৭ ফুট চওড়া রেসিং কারটি তৈরি করতে খরচ পড়েছে প্রায় ৫ লাখ টাকা।

উল্লেখ্য, অকটেন চালিত তাদের এই গাড়ির সর্বোচ্চ গতি ঘণ্টায় ৯০ কিলোমিটার। এতে ব্যবহার করা হয়েছে ২০৮ সিসি ৪-স্ট্রোক ইঞ্জিন, ম্যাগনেট্রন ইলেকট্রনিক ফিউয়েল ইনজেকশন সিস্টেম। ২৩০ কেজি ওজনের এই গাড়ির বডি বানানো হয়েছে ফাইবার গ্লাস দিয়ে।

হাইব্রিড গাড়ি মূলত ইঞ্জিন এবং বৈদ্যুতিক মোটর দিয়ে চালিত হয়। কম গতিতে গাড়ি চলার সময় ইঞ্জিন বন্ধ থাকে এবং গাড়ি শুধু বৈদ্যুতিক মোটর দিয়ে চালিত হয়। আর যখন সর্বোচ্চ গতির প্রয়োজন হয়, উভয় একত্রে কাজ করে। গাড়ি উচ্চ গতিতে চলার সময় ইঞ্জিন থেকে উৎপন্ন অতিরিক্ত ক্ষমতা ব্যাটারিতে রিচার্জ করতে ব্যবহৃত হয়, যা পরবর্তী সময়ে আবার গাড়িটিকে মোটর দিয়ে চালিত করতে সাহায্য করে।favicon59-4

Leave a Reply