অ্যাডসেন্স ছাড়াই আয় করার উপায়

অ্যাডসেন্স ছাড়াই আয় করার উপায়

  • ক্যারিয়ার ডেস্ক

অনলাইনে যাদের একটি ওয়েবসাইট বা ব্লগসাইট আছে, তারা প্রায় সবাই চেষ্টা করেন গুড অ্যাডসেন্স থেকে অর্থ উপার্জন করার। কিন্তু গুগল অ্যাডসেন্স ছাড়াও অর্থ উপার্জন করা যায়, তা অনেকেই জানেন না। এই প্রতিবেদনে থাকছে গুগল অ্যাডসেন্স ছাড়ায় অর্থ উপার্জনের কিছু উপায়।

এফিলিয়েট মার্কেটিং

কোনো প্রতিষ্ঠানের পণ্য বা সেবা যদি আপনার ব্লগে মার্কেটিং করেন এবং সেখান থেকে যদি কেউ কোন পণ্য বা সেবা ক্রয় করে তাহলে ওই প্রতিষ্ঠান আপনাকে একটা নির্দিষ্ট পরিমান কমিশন দেবে পণ্য বা সেবার মূল্য অনুযায়ী। এফিলিয়েট মার্কেটিংয়ের জন্য আপনাকে নিশ ব্লগিং করতে হবে। নিশ ব্লগিং হচ্ছে কোনো একটা নির্দিষ্ট বা বিশেষ পণ্য বা সেবা নিয়ে লেখালেখি করা এবং অন্য কোনো বিষয় নিয়ে ওই ব্লগে না লেখা।

নিশ ব্লগিং করে আপনি দ্রুত পণ্য বা সেবা বিক্রয় করতে পারবেন। মূলত আপনি আপনার লেখার মাধ্যমে একটি পণ্যের বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরবেন এবং পাঠকের পছন্দ হলে আপনার দেয়া লিংকে গিয়ে পণ্যটি বিক্রেতার ওয়েবসাইট থেকে ক্রয় করবে। এভাবে আপনি এফিলিয়েট মার্কেটিং করে আয় করতে পারবেন। বাংলাদেশে ইতিমধ্যে দুজন ব্যক্তি এফিলিয়েট মার্কেটিংয়ে শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন করেছেন। তারা হলেন রিফাত আহমেদ এবং আল-আমিন কবির সুমন।

পিপিসি অ্যাড

এফিলিয়েট মার্কেটিং এ আপনি তখনই আয় করতে পারবেন যখন কোনো একটা পণ্য আপনার ওয়েবসাইটের মাধ্যমে বিক্রি হবে। পিপিসি মানে হল “পে পার ক্লিক” অর্থাৎ কোনো ভিজিটর যখন আপনার সাইটে প্রকাশিত বিজ্ঞাপনে ক্লিক করে তখন আপনি প্রতি ক্লিকে একটা নির্দিষ্ট পরিমাণ অর্থ আয় করেন। গুগল অ্যাডসেন্স ছাড়াও যে সব প্রতিষ্ঠান পিপিসি অ্যাড সরবরাহ করে তাদের মধ্যে কয়েকটি হলো: মিডিয়া নেট, ইনফোলিংক, চিতিকা, ক্লিক বোথ ইত্যাদি।

স্পনসর্ড পোস্ট বা রিভিউ

আপনি যদি লেখালেখিতে দক্ষ হন, তাহলে আপনি ব্লগিংয়ে অতিথি লেখক হয়ে বা কোনো সংস্থার পণ্য ও সেবার রিভিউ লিখে ভালো টাকা উপার্জন করতে পারবেন। এটি ইংরেজি ব্লগিংয়ে খুবই জনপ্রিয়। আপনি একটি আর্টিকেল বা রিভিউ লেখার জন্য ৫ থেকে ২০০ ডলার বা তারও বেশি আায় করতে পারেন। এটি ব্লগিং থেকে অর্থ উপার্জনের সেরা এবং টেকসই উপায়।

এর জন্য আপনার ব্লগের র‌্যাঙ্কটি যেমন ভাল হওয়া উচিত তেমনি ব্লগের ট্র্যাফিকও বেশি হওয়া উচিত। যে কোনো প্রতিষ্ঠান আশা করে আপনি তার পণ্য এবং সেবা সম্পর্কে একটি ভালো রিভিউ লিখে যতটা সম্ভব পাঠকদের কাছে পৌঁছাতে পারেন। এর জন্য আপনাকে একটি সৎ, নির্ভরযোগ্য এবং পরিশ্রমী ব্লগার হতে হবে, তবেই আপনি এই পদ্ধতি থেকে সর্বাধিক উপার্জন করতে সক্ষম হবেন। এটি অন্যান্য পদ্ধতির তুলনায় অনেক ভালো।

ফিক্সড প্রাইস অ্যাড

আপনার ব্লগটি অনেক জনপ্রিয় হলে অনেক প্রতিষ্ঠান সরাসরি মাসিক বা বাৎসরিকভাবে আপনার ব্লগে বিজ্ঞাপন দিতে চাইবে। বিজ্ঞাপনের সাইজ এবং ব্লগে কোথায় সেটা দেখাবেন তা অনুযায়ী আপনি দাম নির্ধারণ করতে পারবেন। আপনি প্রতিদিন যে সকল বিজ্ঞাপন দেখেন তা একটি থেকে আরেকটি সম্পূর্ণ আলাদা হয়। আপনি একটি সময়ের জন্য এই জাতীয় বিজ্ঞাপন আপনার ব্লগে প্রকাশ করে নির্দিষ্ট পরিমাণ অর্থ পেতে পারেন।

এ জাতীয় বিজ্ঞাপন পেতে, আপনার ব্লগে অবশ্যই প্রচুর পাঠক থাকতে হবে। তবে আপনার ক্রমবর্ধমান ব্লগিংয়ের অভিজ্ঞতার সঙ্গে আপনি এ জাতীয় বিজ্ঞাপনগুলো খুঁজে পেতে পারেন। এ জাতীয় বিজ্ঞাপন পেতে, আপনার ব্লগে এমন একটি পেইজ থাকা উচিত যেখানে আপনার ব্লগে বিজ্ঞাপন দেয়ার সুযোগ রয়েছে তা বিস্তারিত লেখা থাকবে।

এছাড়াও আরো অনেক উপায় রয়েছে গুগল অ্যাডসেন্স ছাড়াও ব্লগ থেকে আয় করার। একটু চোখকান খোলা রাখলে আপনি নিজেই সেসব খুঁজে বের করতে পারবেন।

Leave a Reply