প্রস্তুতি: স্যাট জিম্যাট জিআরই

প্রস্তুতি: স্যাট জিম্যাট জিআরই

  • ক্যারিয়ার ডেস্ক

বাংলাদেশের বেশিরভাগ সরকারি ও পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা শেষ হয়েছে। অনেকেই আছেন, যারা কাঙ্ক্ষিত বিষয়ে পড়ার সুযোগ পাননি। এজন্য পড়তে যেতে চান দেশের বাইরে। আবার অনেকেই আছেন আগে থেকেই প্রস্তুতি শুরু করেছেন দেশের বাইরে পড়তে যাওয়ার। বাইরে পড়তে যেতে হলে প্রথম প্রস্তুতি শুরু করতে হয় ভাষাশিক্ষা। এছাড়া স্নাতক পর্যায়ে পড়াশোনার জন্য রাখতে হয় স্যাটের প্রস্তুতি। স্যাটে ভালো স্কোর করলে মেলে আমেরিকার বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে স্কলারশিপে পড়ার সুযোগ।

স্যাট
স্কলাসটিক অ্যাপটিচুড টেস্ট (Scholastic Aptitude Test) এবং স্কলাসটিক অ্যাসেসমেন্ট টেস্ট (Scholastic Assessment Test) সংক্ষেপে পরিচিত স্যাট নামে। আমেরিকার কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয়গুলোয় স্নাতক পর্যায়ে ভর্তি হওয়ার জন্য স্যাটের প্রয়োজন। স্নাতক পর্যায়ের পড়াশোনায় স্কলারশিপ পেতে হলে স্যাটের ভালো স্কোর জরুরি। ২০০৫ সাল থেকে প্রবর্তিত নিয়ম অনুযায়ী, স্যাট পরীক্ষায় অংশগ্রহণের সময় ৩ ঘণ্টা ৪৫ মিনিট।
স্যাট-১ পরীক্ষায় মোট তিনটি অংশ- পড়া, গণিত ও লেখা। ক্রিটিক্যাল রিডিংয়ের পরীক্ষা নেয়া হয় মৌখিকভাবে। তিনটি বিভাগে রিডিংয়ের পরীক্ষাগুলো নেয়া হয়। এর মধ্যে ২৫ মিনিট করে দুইটি বিভাগ এবং একটি বিভাগের জন্য ২০ মিনিট সময়সীমা নির্ধারিত। বিভিন্ন ধরনের প্রশ্নের মধ্যে বাক্য সমাপ্তকরণ, ছোট ও বড় প্যাসেজ সম্পর্কে প্রশ্ন থাকে। বাক্য সমাপ্তকরণে সাধারণত ছাত্রদের শব্দজ্ঞান, বাক্য গঠন, বোঝার ক্ষমতা এবং সঠিক শব্দ দ্বারা বাক্য গঠন সম্পর্কিত প্রশ্নও থাকে। পরীক্ষায় দেয়া প্রশ্নগুলো পর্যায়ক্রমে সহজ থেকে কঠিন হয়।

গণিতের সেকশনটি ক্যালকুলেশন সেকশন নামে পরিচিত। এর প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় ভাগের বেশিরভাগ অংশজুড়ে রয়েছে সঠিক উত্তর খুঁজে বের করার পদ্ধতি। এখানেও দুইটি বিভাগ ২৫ মিনিট করে এবং তৃতীয় বিভাগের জন্য ২০ মিনিট সময় নির্ধারিত। পরীক্ষার্থীরা গণিত পরীক্ষার সময় গ্রাফিং ক্যালকুলেটর ব্যবহার করতে পারবেন।

রাইটিং বিভাগে সঠিক উত্তর খুঁজে বের করা প্রশ্নগুলোর মধ্যে পাবেন শব্দ এবং প্যারাগ্রাফ উন্নতিকরণ প্রশ্ন। ভুল কিছু প্রশ্ন দেয়া থাকবে, যার ঠিক উত্তরটি দেয়ার মাধ্যমে সাধারণ জ্ঞানের ভান্ডার যাচাই করা হবে। এছাড়া ২৫ মিনিটের মধ্যে রচনা লিখতে হবে। সামাজিক জ্ঞান ও শিক্ষাজীবন অভিজ্ঞতা থেকে রচনাগুলো লেখা যাবে।
বছরের সাতটি সময়ে স্যাট পরীক্ষা দেয়ার সময় নির্ধারণ করা আছে। অক্টোবর, নভেম্বর, ডিসেম্বর, জানুয়ারি, মার্চ অথবা এপ্রিল, মে ও জুন। নভেম্বর, ডিসেম্বর, মে ও জুনের পরীক্ষা নেয়া হয় মাসের প্রথম শনিবার। এছাড়া আমেরিকান সেন্টার থেকে বিস্তারিত তথ্য জানা যাবে।

জিম্যাট জিআরই
উন্নত প্রযুক্তির স্বাদ নিতে অধিকাংশ শিক্ষার্থীরই প্রথম পছন্দ যুক্তরাষ্ট্র। তার সঙ্গে রয়েছে স্কলারশিপ ও পার্টটাইম চাকরির সুযোগ, যা আমাদের মতো উন্নয়নশীল দেশের শিক্ষার্থীদের সুবিধার পাশাপাশি আগ্রহও বাড়িয়ে দিচ্ছে। কিন্তু দরকার যে বিষয়ের সেই বিষয়টি হলো- জিম্যাট এবং জিআরই করা। বিদেশে হোক স্নাতক পড়া অথবা পিএইচডিÑ জিআরই বা জিম্যাট করতেই হবে। পার্থক্য শুধু যারা ব্যবসায় শিক্ষাকে মেজর নিতে চান তাদের জন্য শুধু জিম্যাট। বাকিদের জন্য জিআরই। জিম্যাট অথবা জিআরইয়ের জন্য নির্ধারিত কোনো মান পেতে না হলেও নিবন্ধন করতে হয়। যত বেশি নম্বর অর্জন করা যাবে, স্কলারশিপের পরিমাণ তত বেশি থাকবে। জিআরই ও জিম্যাট পরীক্ষার ফরম এবং পরীক্ষা সম্পর্কে প্রাসঙ্গিক তথ্য পেতে হলে আমেরিকান সেন্টারে যোগাযোগ করতে হবে। দুইভাবে নিবন্ধন করা যায়Ñ অনলাইন এবং ব্যাংক ড্রাফটের মাধ্যমে। অনলাইনে পরীক্ষার সাত দিন আগে নিবন্ধন করা বাধ্যতামূলক।পরীক্ষা দেয়ার জন্য অবশ্যই পাসপোর্ট রাখতে হবে।যোগাযোগ: আমেরিকা সেন্টার, ফোন : ০২৮৮৫৫৫০০। E-mail : DhakaPA@state.govfavicon59-4

Leave a Reply