৬৪ জেলায় তরুণের প্রশিক্ষণ

৬৪ জেলায় তরুণের প্রশিক্ষণ

  • ক্যারিয়ার ডেস্ক

বেকার যুবকদের জন্য নিয়মিত প্রশিক্ষণ কর্মসূচির আয়োজন করে যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর। ২০১৬-১৭ সেশনের দ্বিতীয় ধাপে প্রশিক্ষণ পাবেন ১১ হাজার ৭৭০ জন। আবেদন করতে পারবেন ১৮ থেকে ৩৫ বছর বয়সী তরুণ-তরুণীরা। মুক্তিযোদ্ধা কোটার প্রার্থীদের ক্ষেত্রে বয়সসীমা শিথিলযোগ্য। আবেদন করতে হবে ২৬ ডিসেম্বরের মধ্যে।

যেসব বিষয়ে প্রশিক্ষণ

তৈরি পোশাক, মডার্ন অফিস ম্যানেজমেন্ট অ্যান্ড কম্পিউটার অ্যাপ্লিকেশন, কম্পিউটার বেসিক, কম্পিউটার গ্রাফিকস অ্যান্ড ভিডিও এডিটিং, ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড হাউসওয়্যারিং, রেফ্রিজারেশন অ্যান্ড এয়ারকন্ডিশনিং ও ইলেকট্রনিকস বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে।

যোগ্যতার মাপকাঠি
তৈরি পোশাক ট্রেড : এই ট্রেডে সারাদেশের ৭০টি কেন্দ্রে ২৫ জন করে মোট ১ হাজার ৭৫০ জন প্রশিক্ষণ পাবেন। তিন মাস মেয়াদি এ কোর্সে ভর্তির যোগ্যতা অষ্টম শ্রেণি পাস।

মডার্ন অফিস ম্যানেজমেন্ট অ্যান্ড কম্পিউটার অ্যাপ্লিকেশন : ছয় মাস মেয়াদি মডার্ন অফিস ম্যানেজমেন্ট অ্যান্ড কম্পিউটার অ্যাপ্লিকেশন কোর্সে ভর্তির যোগ্যতা এইচএসসি। ৩৭টি কেন্দ্রে ৩০ জন করে মোট প্রশিক্ষণ পাবেন ১ হাজার ১০০ জন।

কম্পিউটার বেসিক কোর্স : ছয় মাস মেয়াদি কম্পিউটার বেসিক কোর্সেও আবেদনের যোগ্যতা এইচএসসি। ঢাকার খিলগাঁও কেন্দ্রে ২০ জন, যুব প্রশিক্ষণ কেন্দ্র সাভারে ৪০ জন, আঞ্চলিক মানবসম্পদ উন্নয়ন কেন্দ্র সাভারে ১৮০ জন এবং রাজশাহী, চট্টগ্রাম, খুলনা, বরিশাল ও সিলেট কেন্দ্রে ৬০ জন করে এবং অবশিষ্ট ৫৮ জেলার প্রতিটি কেন্দ্রে ৪০ জন করে মোট ২ হাজার ৮৬০ জনকে দেওয়া হবে এ প্রশিক্ষণ।

কম্পিউটার গ্রাফিকস অ্যান্ড ভিডিও এডিটিং : এই কোর্সের মেয়াদও ছয় মাস। এইচএসসি পাস হলেই আবেদন করা যাবে। ঢাকার খিলগাঁও কেন্দ্রে ২০ জন এবং সাভার, রাজশাহী, চট্টগ্রাম, খুলনা, বরিশাল ও সিলেট আঞ্চলিক মানবসম্পদ উন্নয়ন কেন্দ্রে ৩০ জন করে মোট ২০০ জনকে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে।

ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড হাউসওয়্যারিং, রেফ্রিজারেশন অ্যান্ড এয়ারকন্ডিশনিং ও ইলেকট্রনিকস : এই কোর্সগুলোতে মোট ৫ হাজার ৮৫০ জন প্রশিক্ষণ পাবেন। প্রতিটি বিষয়ে আঞ্চলিক মানবসম্পদ উন্নয়ন কেন্দ্র সাভারে ৬০ জন এবং অবশিষ্ট ৬৩ জেলার প্রতি কেন্দ্রে ৩০ জন করে প্রশিক্ষণ পাবেন। ছয় মাসের এসব কোর্সে অষ্টম শ্রেণি পাস হলেই আবেদন করা যাবে।

আবেদনের বিস্তারিত
ভর্তি ও প্রশিক্ষণ-সংক্রান্ত যে কোনো তথ্যের জন্য যোগাযোগ করতে হবে নিজ জেলার যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরে। এ ছাড়া প্রতি উপজেলার উপপরিচালক, কো-অর্ডিনেটর, ডেপুটি কো-অর্ডিনেটর এবং উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তার দপ্তরে যোগাযোগ করেও জানা যাবে প্রয়োজনীয় তথ্য। আর আবেদন ফরম পাওয়া যাবে www.dyd.gov.bd -এই ওয়েবসাইটে।

এ ছাড়া প্রতি উপজেলার উপপরিচালক, কো-অর্ডিনেটর, ডেপুটি কো-অর্ডিনেটর এবং উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তার কার্যালয় থেকেও বিনামূল্যে আবেদন ফরম সংগ্রহ করা যাবে। নিজ হাতে আবেদন ফরম পূরণ করতে হবে। পূরণ করার পর আবেদন ফরম নিজ উপজেলার দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তার দপ্তরে জমা দিতে হবে।

আবেদনপত্রের সঙ্গে শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদের ফটোকপি, জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপি বা স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বা পৌর কমিশনারের দেওয়া জন্মনিবন্ধন সনদের ফটোকপি এবং সদ্য তোলা দুই কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি সংযুক্ত করতে হবে।favicon59-4

Leave a Reply