তৎপর হতে হবে ছাত্রজীবন থেকেই

তৎপর হতে হবে ছাত্রজীবন থেকেই

  • ক্যারিয়ার ডেস্ক

অনেকেই ছাত্রজীবনটাকে পড়াশোনার মধ্যে সীমাবদ্ধ রাখতে পছন্দ করেন। পণ্ডিতরাও ঠিক একই রকমের কথা বলতেন, তাঁদের মতে ছাত্রনং অধ্যয়নং তপঃ। কিন্তু বাস্তবতা এখন আর তা বলে না কারন ছাত্রজীবনে পড়াশোনার পাশাপাশি নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে হলে এবং  বর্তমান প্রতিযোগিতার বিশ্বে টিকে থাকতে হলে চিন্তাধারা একটু পরিবর্তন করতে হবে।

পড়াশোনার পাশাপাশি আরও কিছু জ্ঞান অর্জন করতে হবে এবং সমসাময়িক জ্ঞানের সাথে নিজেকে জড়ানোর চেষ্টা করতে হবে। এধরনের কাজ যেমন জীবন ধারন ও জীবন যাপনের ক্ষেত্রে সহায়তা করবে তেমনি ভবিষ্যতে ভাল ক্যারিয়ার গড়তে সাহায্য করবে।

ছাত্রজীবনের ক্যারিয়ার
আমাদের দেশের প্রচলিত শিক্ষা ব্যবস্থাতে একজন ছাত্রের পক্ষে তার পছন্দ অনুযায়ী বিষয়ে পড়াশোনার সুযোগ খুব কম সময়ই পাওয়া যায়। তাই সাধারনত, বিষয় পছন্দের ক্ষেত্রে প্রাধান্য পায় কোন বিষয়ের বর্তমান চাহিদা কতটুকু। মূলত একধরনের ক্যারিয়ার চিন্তার জায়গা থেকেই সিদ্ধান্তটা আসে। তবে এ ক্ষেত্রে যে বিষয়টা প্রয়োজন সেটা হলো, বিষয় সম্পর্কে স্পষ্ট ধারনা থাকা। মূলত উচ্চশীক্ষার জন্য সে বিষয়েই যাওয়া উচিত একজন ছাত্র যেটাতে বেশি পারদর্শী বা বেশী আগ্রহী। আগ্রহ না থাকলে মূলত কোন কিছুই সঠিকভাবে প্রস্ফুটিত হয় না।

ছাত্রদের জন্য ক্যারিয়ার গড়ে তোলার ক্ষেত্রে সবচেয়ে বড় ভুমিকা রাখে বিভিন্ন জায়গায় পার্ট-টাইম চাকরি আর ইন্টার্নশিপ। বর্তমান সময়ে প্রায় সকল জায়গাতেই অভিজ্ঞ লোকের কদর বেশী। কাজেই ক্যারিয়ারের শুরুতে এই অভিজ্ঞতাহীনতা সবচেয়ে বেশি ভোগায় একজন নতুন মানুষকে। কাজেই ছাত্রাবস্থা থেকে এই বিষয়টার প্রতি মনযোগ রাখলে দেখা যায় এ বিষয়ে অন্য অনেকের থেকে অনেক বেশি এগিয়ে যাওয়া যায়।

ছাত্রজীবন ক্যারিয়ার গঠনের জন্য আসলে একটা প্রস্তুতি পর্ব। এই প্রস্তুতির উপরই মূলত নির্ভর করে পরবর্তীতে ক্যারিয়ার কোন দিকে যাবে তা। তাই আমরা যে বিষয়গুলো পাই ছাত্রাবস্থায় ক্যারিয়ার গঠনের মূল চাবিকাঠি হিসাবে তা হলো, পরিকল্পনা, বাস্তবায়নে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ এবং পরবর্তী কর্মপরিকল্পনা তৈরি। একজন সফল মানুষ প্রতিনিয়ত নিজেকে পরিকল্পিত অবস্থায় নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন। পরিকল্পিত জীবনচর্চাই মূলত একজন মানুষকে তার জীবনের সকল অবস্থার পরিবর্তন ঘটিয়ে একটি সুন্দর ও স্বাভাবিক, আকাংক্ষিত অবস্থায় নিয়ে যেতে সাহায্য করে। সুন্দর পরিকল্পনা যেমন সুন্দর সম্ভাবনার পূর্বশর্ত, তেমনি সেই পরিকল্পনাকে বাস্তবায়ন করতে পারে একমাত্র লক্ষ্য পূরনের উদ্দেশ্যে কৃত চেষ্টা। এই চেষ্টা যতটা সুন্দর, শক্তিশালী এবং গঠনমূলক হবে, ক্যারিয়ার ততই মসৃন এবং একটি সাফল্যজনক অবস্থার দিকে নিয়ে যাবে। কাজেই সঠিক পরিকল্পনা ও তার বাস্তবায়ন ছাত্রাবস্থায় অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ন একটি বিষয়।favicon59-4

Leave a Reply