পড়াশোনার পাশাপাশি ইন্টার্নশিপ

পড়াশোনার পাশাপাশি ইন্টার্নশিপ

  • ক্যারিয়ার ডেস্ক

চতুর্থ শ্রেণীতে পড়ার সময় মাইক্রোসফট শব্দের সাথে পরিচিত হন তানভীর সৌরভ। কম্পিউটার ওপেন করতে গেলে এ নামটি মনিটরে ভেসে উঠতো। এছাড়া অফিসের বিভিন্ন প্রোগ্রামের নামের শুরুতে থাকত মাইক্রোসফট। ইন্টারমিডিয়েটে উঠে প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজ শিখতে গিয়ে জানতে পারে বাংলাদেশে মাইক্রোসফটের অফিস রয়েছে। তারপর থেকে স্বপ্ন দেখার পালা শুরু হয়। আহসানউল্লাহ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার সময় মোবাইলে অ্যাপ্লিকেশন বানানো শুরু করেন। ক্যাম্পাস  এবং বাইরের প্রতিযোগিতায়ও সাফল্য আসে। ফলশ্রুতিতে মাইক্রোসফট স্টুডেন্ট পার্টনার হিসেবে কাজ করার সুযোগ পান। সম্মান চতুর্থ বর্ষে তাদের ছয় মাসের ইন্টার্নশিপ বাধ্যতামূলক। অনলাইনে মাইক্রোসফটের বাংলাদেশ অফিসে ইন্টার্নশিপ করার আবেদন করেন। লিখিত পরীক্ষা নিয়ে যাচাই করা হয় আবেদনকারীর যোগ্যতা। তারপর ভাইভা নিয়ে ফলাফল ঘোষণা করা হয়। বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় ভাল করায় সৌরভকে লিখিত পরীক্ষা দিতে হয়নি। সরাসরি ভাইভা দিয়ে সুযোগ পান ইন্টার্নশিপ করার।

ইন্টার্নশিপ যে কোনো শিক্ষার্থীর জন্য চাকরি বুঝতে দারুণ সুযোগ। কাজের অভিজ্ঞতা, চাকরি তার মনমতো কিনা, অফিসের পরিবেশ কেমন, সে খাপ খাওয়াতে পারবে কিনা এসব বিষয় জানা যায় ইন্টার্নশিপ করার সময়। আর কাজের অভিজ্ঞতা হওয়ায় সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানকে নিজের সামর্থ্য সম্পর্কে দেখানো যায়। প্রতিষ্ঠান তার পারফরমেন্সে খুশি হলে তাকে সরাসরি নিয়োগ দিয়ে থাকে। সাধারণত ইন্টার্নশিপের সময়কাল তিন থেকে ছয় মাস হয়ে থাকে। এটি প্রতিষ্ঠানভেদে নির্ভর করে। বড় বড় প্রতিষ্ঠানগুলো তাদের প্রতিষ্ঠানে ইন্টার্নশিপের অফার করে থাকে। একটি নির্দিষ্ট সময়ে কিংবা ওয়েবসাইটে এ সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি দেয়া হয়। যথাযথ আবেদন প্রক্রিয়া অনুসারে আবেদন করার পর যোগ্য প্রার্থী থেকে বাছাই হয়ে থাকে।

মাইক্রোসফটে ইন্টার্নশিপ আবেদন প্রক্রিয়া প্রসঙ্গে মাইক্রোসফট বাংলাদেশের একজন কর্মকর্তা জানান, ‘আমাদের ওয়েবসাইটে ইন্টার্নশিপ সংক্রান্ত বিশদ তথ্য দেয়া আছে। আমরা উইন্ডোজ অ্যাপ ডেভেলপ করার কাজকে বেশি অগ্রাধিকার দিয়ে থাকি। সে অনুসারে আবেদন করার পর লিখিত পরীক্ষা নিয়ে থাকি। যারা লিখিত পরীক্ষায় ভাল করে তাদের ভাইভায় ডাকা হয়। উত্তীর্ণদের আমাদের প্রতিষ্ঠানে ইন্টার্নশিপ করার সুযোগ দিয়ে থাকি।’

ইন্টার্নশিপের জন্য কিছু প্রতিষ্ঠান ভাতা দিয়ে থাকে। কিছু প্রতিষ্ঠান দেয় না। বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ব্র্যাকের ইন্টার্নশিপ প্রোগ্রামের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার  রাকিব মোহাম্মদ অভি বলেন, ওয়েবসাইটে নির্দিষ্ট আবেদন ফরম পূরণ করে ইন্টার্নশিপের জন্য আবেদন করতে হয়। ইন্টার্নশিপের জন্য নির্বাচিত প্রার্থীকে ইন্টার্নশিপ চলাকালে আমরা কোনো ফি দিয়ে থাকি না। পারফরমেন্স ভালো হলে আমাদের প্রতিষ্ঠানে তাকে সরাসরি চাকরির সুযোগ দেয়া হয়।’ অনার্স মাস্টার্সের অনেক বিষয়ে ইন্টার্নশিপ করা কোর্স কারিকুলামের অংশ। আবার অনেক বিষয়ের ক্ষেত্রে ইন্টার্নশিপ বাধ্যতামূলক নয়।

সূত্র: ইত্তেফাকfavicon59-4

Leave a Reply