ফ্যাশন নিয়ে পড়তে ভারতে

ফ্যাশন নিয়ে পড়তে ভারতে

  • ক্যারিয়ার ডেস্ক

অন্দরসজ্জা, ফ্যাশন, টেক্সটাইল, মেইকআপ কিংবা জুয়েলারি ডিজাইনার হিসেবে এখন যারা সফল, তাদের প্রত্যেকের পেছনের গল্পটা প্রায় একরকম। তাদের প্রাতিষ্ঠানিক পড়াশুনা হয়ত ভিন্ন বিষয়ে, পরে স্বল্প মেয়াদী কোনো কোর্স করে স্ব স্ব স্থানে সফল হয়েছেন।

বর্তমানে এসব বিষয়েও স্নাতক ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রি নেওয়া যায়। এক্ষেত্রে বিদেশের মাটিতে যারা পড়তে যেতে চান তাদের জন্য রয়েছে বেশ কিছু প্রতিষ্ঠান।

জেডি ইনস্টিটিউট অব ফ্যাশন টেকনোলজি। ভৌগলিক অবস্থানে ২৫ বছরের পুরানো এই প্রতিষ্ঠান ভারতের ব্যাঙ্গালোর শহরে অবস্থিত। পাশাপাশি মুম্বাই, দিল্লীরমতো বড় শহরগুলোতে কর্পোরেট সেন্টারসহ গোটা ভারত জুড়ে রয়েছে ৩০টি ক্যাম্পাস। জেডির ক্যাম্পাস রয়েছে লন্ডনের প্যাডিংটনেও।

1তাদের তিন বছর মেয়াদী স্নাতক (সম্মান) ডিগ্রির বিষয়ের মধ্যে রয়েছে ইন্টেরিয়র ও ফ্যাশন ডিজাইনিং। ফ্যাশন ফটোগ্রাফি, জুয়েলারি ডিজাইন, ইন্টেরিয়র ডিজাইন, ফ্যাশন ডিজাইন ও প্রফেশনাল মেইকআপে ছয় মাস কিংবা একবছর মেয়াদী ডিপ্লোমা কোর্স।

এছাড়া ফ্যাশন কমিউনিকেশনে মাস্টার্স করার সুযোগও রয়েছে।

এখানে পড়ার খরচ বাংলাদেশের প্রথমসারির বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলো থেকে অনেক কম। থাকার জন্য ক্যাম্পাসের আশেপাশে অসংখ্য হোস্টেল রয়েছে। আধুনিক ব্যবস্থা আর উন্নত প্রযুক্তি সুবিধাসহ মাসে বাংলাদেশি টাকায় ছয়-সাত হাজার টাকায় সব হয়ে যাবে।

বছরের ফেব্রুয়ারি থেকে সেপ্টেম্বরের মধ্যে যেকোনো সময় জেডিতে ভর্তির দুয়ার খোলা। এজন্য কাউকে কোনো পরীক্ষায়ও বসতে হবে না। সৌদি আরব, শ্রীলঙ্কা, নেপালসহ প্রতিবেশি সব দেশ থেকে পড়তে যাওয়া যায়। যেকোনো তথ্যের জন্য খোঁজ নিতে পারেন www.jdinstitute.com থেকে।

জেডির মেন্টর হিসেবে রয়েছেন ভারতের ফ্যাশন ডিজাইনার রোহিত বাল। প্রাক্তন শিক্ষার্থীরাও কম যান না! এক নিঃশ্বাসে চলে আসে রকি এস, শেন অ্যান্ড ফাল্গুনি, রেজা, গৌরব চাবড়া, উর্বশী কৌর, মেহেকা মিরপুরি, নিতিন-ইশাদের মতো তরুণ উদ্যোক্তা ও ডিজাইনারদের নাম।

পাশাপাশি একই বিষয়ভিত্তিক প্রতিষ্ঠান ব্যাঙ্গালোরে আরও বেশকিছু রয়েছে। তবে এগুলোর মধ্যে গুণে-মানে উল্লেখযোগ্য, সৃষ্টি স্কুল অব আর্ট ও লিসা স্কুল অব ডিজাইন।

কোর্স কারিকুলাম, ভর্তি পদ্ধতিসহ বাকি সব প্রায় একই হলেও, একটি জায়গায় রয়েছে বড় পার্থক্য। জেডি’র তুলনায় এ দুই প্রতিষ্ঠানে পড়ার খরচ প্রায় দুই থেকে তিন গুণ!

সৃষ্টি-তে পড়ার বিষয়ে খোঁজ নিতে ঢুঁ দিতে পারেন তাদের ওয়েবসাইটে www.srishti.ac.in। আর লিসা’র ওয়েবসাইট www.lisaabangalore.com।

সূত্র: বিডিনিউজfavicon59-4
  1. By cool health articles on মে 8, 2017 at 9:23 অপরাহ্ন

    cool health articles

    Hello, I enjoy reading all of your post. I wanted to write a little comment to support you.

  2. By estate financial planning on মে 9, 2017 at 3:49 পূর্বাহ্ন

    estate financial planning

    I think that is among the so much significant info for me. And i am glad reading your article. But wanna commentary on some common issues, The website style is wonderful, the articles is really great : D. Just right process, cheers

  3. By investment options on মে 9, 2017 at 7:53 পূর্বাহ্ন

    investment options

    It’s actually very complex in this active life to listen news on TV, thus I only use the web for that purpose, and obtain the newest information.

  4. By business ideas on মে 9, 2017 at 3:46 অপরাহ্ন

    business ideas

    I need to to thank you for this fantastic read!! I definitely enjoyed every little bit of it. I have you bookmarked to look at new stuff you post…

Leave a Reply