কভার লেটার লেখার নিয়ম

কভার লেটার লেখার নিয়ম

  • ক্যারিয়ারে ডেস্ক

আবেদনপত্রের সঙ্গে এখন অধিকাংশ কোম্পানিই কভার লেটার দিতে বলে। যারা বলে না তারা সিভি পাঠানোর সময় আপনি যে মেইলটি লিখেন সেটিকেই কভার লেটার বলে ধরে নেয়।

কভার লেটার কী?
সহজে কভার লেটার কি বোঝার জন্য আসুন ‘কভার লেটার’ শব্দটিকে আমরা ভেঙে ফেলি। ভাঙলে আমরা কি পাই? কভার+লেটার। তার মানে হল যে লেটার আপনার চাকরির আবেদনের যাবতীয় দিক কভার করে তাকে কভার লেটার বলে।

এবার আসি ‘যাবতীয় দিক’ মানে কি?
যাবতীয় দিক মানে হচ্ছে নিন্মোক্ত ৬টি দিক :

১. কোথা থেকে চাকরিটির খোঁজ পেয়েছেন? (একবাক্যে লিখুন)

২. আপনাকে পরিচিত করান : এখানে আপনি দুটি বাক্য লিখবেন। এর মাঝে নিজেকে তুলে ধরুন। আপনি কি কি কাজ করছেন লিখুন।

৩. আপনি যে পদের জন্য আবেদন করছেন, সেই পদের জন্য যে কাজগুলোর কথা সার্কুলারে লেখা আছে তার সঙ্গে আপনার বর্তমান বা অতীতের কাজের যোগসূত্র করুন।

৪. আপনার শিক্ষাগত দিক ও ট্রেনিং উল্লেখ করুন

৫. আপনাকে কেন ইন্টারভিউর জন্য ডাকা উচিত হবে? কেন অন্য কেউ না? কেন আপনি নিজেকে ওই পদের জন্য সেরা আবেদনকারী বলে মনে করেন? কোন মায়াকান্না, ন্যাকা কথা লেখা যাবে না। উদ্দেশ্য কেবলই কাজ করার মানসিকতা থাকতে হবে।

৬. আপনাকে ডাকলে আপনি যে আসবেন সেরকম পজেটিভ একটি বাক্য লিখে শেষ করুন।

সুতরাং, আপনার তথ্যসূত্র+আপনার পরিচয়+আপনার পারফর্মেন্স+লেখাপড়া+আপনার পটেনশিয়ালিটি+আপনার অ্যাভেইলাবিলিটি = আপনার কভার লেটার।
অনেক কোম্পানি আছে কভার লেটার ছাড়া আবেদনপত্রই গ্রহণ করেন না। এই কভার লেটারকে অনেকে সিভির সারাংশ বলে থাকেন।

নতুনরা এক্সপেরিএন্স শূন্য নয়। তারা তাদের ইন্টার্নশিপ, ইন্ডাস্ট্রি ভিজিট, থিসিস, প্রজেক্ট, কো-কারিকুলাম অ্যাক্টিভিটিজের মাধ্যমে দুই ও তিন নম্বর পয়েন্ট দুটি পূরণ করতে হবে।favicon59-4

Leave a Reply