সময় এখন পর্যটনের, পড়ুন ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট

সময় এখন পর্যটনের, পড়ুন ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট

  • মো. সাইফুল ইসলাম খান

এইচএসসি পরীক্ষা তো শেষ, এখন মাথায় নতুন ভাবনা–কোন বিষয় নিয়ে স্নাতক পড়ব! মা-বাবা, বন্ধু, বড় ভাই, আত্মীয়-স্বজন থেকে শুরু করে একেক জনের একেক পরামর্শ। তবে নিজের ভালো লাগা বিষয়ের সঙ্গে মিলিয়ে নিতে হয় সময়ের চাহিদাকে। যেমন, সময় এখন পর্যটনের। সারা বিশ্বেই পর্যটনকেন্দ্রিক পড়াশোনার কদর বাড়ছে হু হু করে। বাংলাদেশে তো বটেই। সুতরাং আপনার পছন্দ যদি হয় পর্যটন ও আতিথেয়তা, তাহলে চোখ বন্ধ করে ভর্তি হতে পারেন ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট বিষয়ে।

কোথায় পড়বেন: বাংলাদেশে প্রায় ১৫টি সরকারি ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে এবং কলেজে পর্যটন নিয়ে পড়ালেখা করার সুযোগ রয়েছে। তবে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে কেবলমাত্র ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়েই এ বিষয়ে পড়ার সুযোগ রয়েছে। প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে অন্যতম ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি। ইতিমধ্যে তরুণ-তরুণীদের কাছে ভীষণ জনপ্রিয়তা পেয়েছে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট বিভাগ

কেন পর্যটন, কেন ড্যাফোডিল: ‘পর্যটনের সাথে একান্তভাবে যে পড়াটির যোগসূত্র রয়েছে তা হলো হোটেল ম্যানেজমেন্ট। বলা যায় আগামীর পেশা পর্যটন ও হোটেল ম্যানেজমেন্ট।’ এভাবেই কথা শুরু করেন ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট বিভাগের দশম সেমিস্টারে পড়ুয়া শিক্ষার্থী আবু সালেহ। তিনি বলেন, বাংলাদেশে বেশকিছু আন্তর্জাতিক চেইন হোটেল ব্যবসা শুরু করেছে। ঢাকার বাইরে চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, সিলেটেও বেশ কিছু চার তারকা ও পাঁচ তারকা হোটেল শুরু করেছে তাদের ব্যবসা। এসব হোটেলে প্রচুর দক্ষ কর্মীবাহিনী দরকার হচ্ছে। দেশের বাইরে তো সুযোগ আরও ব্যাপক।

Tourism-DIU
এক ফ্রেমে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট বিভাগের কয়েকজন শিক্ষক ও শিক্ষার্থী।

বেকারত্ব বাংলাদেশেসহ উপমহাদেশের একটি প্রধানতম সমস্যা। প্রয়োজনীয় কর্মসংস্থানের অপ্রতুলতা, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে সেশনজটের কারণে বয়স বেড়ে যাওয়া এই অঞ্চলের কর্মপ্রার্থীদের জন্য এক জীবন মরণ সমস্যা। তুলনামূলক দ্রুত কর্মসংস্থানের জন্য হোটেল ম্যানেজমেন্ট ক্ষেত্রটি সেক্ষেত্রে বড় ভূমিকা পালন করে যাচ্ছে।

ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট বিভাগের কোর্স কারিকুলাম একটু ভিন্নভাবে সাজানো–জানালেন এই বিভাগের বিভাগীয় প্রধান মাহবুব পারভেজ। তিনি বলেন, শিক্ষার্থীদের চার বছরের শিক্ষাজীবনকে আমরা চারটি সেগমেন্টে ভাগ করেছি। প্রথম সেগমেন্ট হচ্ছে রেগুলার বা নিয়মিত কোর্সের আওতাধীন পড়াশোনা, দ্বিতীয় সেগমেন্ট হচ্ছে কো-কারিকুলাম বা সহশিক্ষা কার্যক্রম, তৃতীয় সেগমেন্ট ল্যাব ও অন একুকেশন ট্রেনিং এবং চতুর্থ সেগমেন্ট হচ্ছে ক্যারিয়ার। এই চারটি সেগমেন্টের ভেতর দিয়ে একজন শিক্ষার্থীকে স্নাতক সম্পন্ন করতে হয় বলে তার পক্ষে কর্মজীবনের জন্য দক্ষ মানবসম্পদ রূপে গড়ে ওঠা ছাড়া বিকল্প থাকে না। আর এসব কারণেই ড্যাফোডিলের ট্যুরিজম বিভাগে শিক্ষার্থীরা ভর্তি হয়।

আরও পড়ুন : ট্যুরিজমে পড়ে কাউকে ক্যারিয়ার নিয়ে ভাবতে হবে না : মাহবুব পারভেজ

বিভাগীয় প্রধানের কথার সঙ্গে মিল পাওয়া গেল বর্তমান শিক্ষার্থীদের বক্তব্যের। নাবিলা আক্তার পড়ছেন ১১ম সেমিস্টারে। তিনি বলেন, আমাদের বিভাগের নিজস্ব হাউজ কিপিং ল্যাব রয়েছ এবং সার্ভিস ল্যাব রয়েছে। ফলে পড়াশোনার পাশাপাশি ব্যবহারিক জ্ঞান অর্জন করতে পারছি। আরেক শিক্ষার্থী রাকিব হোসেন বলেন, দুই বছর পর অন এডুকেশন পোগ্রামের মাধ্যমে আমাদেরকে কোনো না কোনো হোটেল, রিসোর্ট কিংবা পর্যটন প্রতিষ্ঠানে চার মাসের জন্য ইন্টার্নশিপ করতে হয়। এছাড়া চার বছর পর পূর্ণাঙ্গ ইন্টার্নশিপ তো আছেই। কথা হয় নবম সেমিস্টারের শিক্ষার্থী তানিয়া সুলতানার সঙ্গে। তিনি বলেন, এখানে পড়াশোনার পাশাপাশি নিজের নেতৃত্বগুণ ও নানা বিষয়ে দক্ষতা বাড়ানোর জন্য প্রচুর সহশিক্ষা কার্যক্রমে অংশ নেওয়ার সুযোগ রয়েছে। সবচেয়ে বড় সুযোগ হচ্ছে, শিক্ষার্থী বিনিময় প্রকল্পের মাধ্যমে প্রতি বছরই দেশের বাইরের খ্যাতনামা বিশ্ববিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে পড়তে যাওয়ার সুযোগ পাওয়া যায়। তাছাড়া ছাত্রাবস্থাতেই আমরা এয়ার টিকেটিং সফটওয়্যার ও হোটেল ম্যানেজমেন্ট সফটওয়্যারের সঙ্গে পরিচিত হতে পারি। এসব কারণই আমাকে এখানে ভর্তি হতে অকৃষ্ট করেছে।

Tourism-DIU
পর্যটন এলাকা পরিদর্শন করছেন শিক্ষার্থীরা।

শিক্ষার্থী বিনিময় প্রকল্প: ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির সঙ্গে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের নামীদামী বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর রয়েছে শিক্ষার্থী বিনিময় প্রকল্প শীর্ষক সমঝোতা চুক্তি। এই প্রকল্পের আওতায় ইতিমধ্যে ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট বিভাগের বেশ ক’জন শিক্ষার্থী যুক্তরাষ্ট্র, চীন, ইন্দোনেশিয়া ও ফিলিপাইনের বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করে এসেছেন। প্রতি বছরই এই বিভাগের কোনো না কোনো শিক্ষার্থী বিদেশের কোনো না কোনো বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়তে যান।

ভর্তির যাবতীয় তথ্য পেতে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি, ৪/২ সোবাহানবাগ, ধানমন্ডি, ঢাকা এই ঠিকানায় যোগাযোগ করতে হবে। প্রয়োজনীয় টেলিফোন নাম্বার সমূহঃ ৪৮১১১৬৩৯, ৪৮১১১৬৭০, ৯১২৮৭০৫ বর্ধিত: ৪৪৪, ৫৫৫। মোবাইল: ০১৭১৩৪৯৩০৫০-১, ০১৮৪৭১৪০০৬১ ফ্যাক্স: ৮৮-০২-৯১৩১৯৪৭। ইমেইল: info@daffodilvarsity.edu.bd, ওয়েব: www.daffodilvarsity.edu.bd

Leave a Reply