সময়ের পেশা মার্চেন্ডাইজিং

সময়ের পেশা মার্চেন্ডাইজিং

মারুফ ইসলাম : কিছু জানা কথা দিয়েই শুরু করি। বর্তমানে দেশের রফতানি আয়ের শতকরা ৮০ ভাগ আসে তৈরি পোশাক খাত থেকে। প্রতি বছর এ খাতে বিনিয়োগ বাড়ছে আর তার সাথে বাড়ছে কর্মসংস্থান। তাই সম্ভাবনাময় এ খাতে পেশা গড়তে চাওয়া নিশ্চয় বুদ্ধিমত্তার পরিচায়ক। আরও বুদ্ধিমত্তার পরিচায়ক হবে যদি আপনি নির্ভুলভাবে নির্বাচন করতে পারেন এ খাতের কোন দিকটায় পেশা গড়বেন। অনেকের কাছে মার্চেন্ডাইজিং এক আকর্ষণীয় পেশার নাম। আপনি নিশ্চয় জানেন, পোশাকশিল্পে খুব গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন একজন মার্চেন্ডাইজার। বর্তমানে অনেক তরুণ-তরুণী প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষার পাশাপাশি প্রফেশনাল কোর্স করে থাকে। ক্যারিয়ার গঠনে এমন একটি ফলপ্রসূ কোর্স গার্মেন্টস বায়িং অ্যান্ড মার্চেন্ডাইজিং।


ক্যারিয়ার সম্ভাবনা

  • বর্তমান বিশ্ববাজারে পোশাক শিল্পের বিপুল বিস্তৃতির কারণে অন্যসব পেশার চেয়ে এ পেশায় চাকরি পাওয়াটা বেশ সহজ। একেকটি পোশাক শিল্প এবং বায়িং হাউসে প্রচুর পরিমাণে দক্ষ লোক নিয়োগ করা হয়। এই প্রেক্ষাপটে এ পেশার ব্যাপক দক্ষ জনবল গড়ে তোলার লক্ষ্য নিয়ে আমাদের দেশেও এই শিল্প সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান গড়ে ওঠেছে। প্রশিক্ষণ নিতে পারেন সেসব প্রতিষ্ঠানে।

কী শিখবেন

  • মার্চেন্ডাইজিং পেশাটি সম্পূর্ণ কারিগরি বা বাস্তবভিত্তিক কাজ তাই এ সেক্টরে প্রশিক্ষণ ব্যতীত চাকরি পাওয়াটা বেশ কঠিন। তাই প্রাতিষ্ঠানিক পড়াশোনার পাশাপাশি কোর্স করতে পারেন এক্সপোর্ট, ইমপোর্ট, বায়িং পলিসি, ইন্ডেটিং, ব্যাংক, কাস্টমস, ডিইডিও, ইপিবি, বিজিএমআই, শিপিং, এলসি, ডকুমেন্টশন, করস্পন্ডেস, জিএসপি, কোটা, টোটার গার্মেন্টস প্রোডাকশন (ওভেন, নিট, সুয়েটার), কোয়ালিটি কন্ট্রোলিং ফ্রেবিকস, এক্সেসোরিস, ল্যাব টেস্ট, কস্টিং মার্চেন্ডাইজিং প্রোডাক্যশন প্ল্যানিং, মার্কেটিং এবং ই-মেইল, ইন্টারনেটসহ পোশাকশিল্পের আনুষঙ্গিক বিভিন্ন বিষয়ে।

চাকরির সুযোগ

  • বাংলাদেশে প্রায় ১০ হাজার গার্মেন্টস ফ্যাক্টরি রয়েছে। বৃহৎ এই শিল্পটিতে প্রায় ৫০ লাখ লোক বিভিন্ন পদে চাকরি করছে। এ ছাড়াও রয়েছে বায়িং হাউস, সুয়েটার ফ্যাক্টরি , টেক্সটাইল ইন্ডাস্ট্রি এবং কোয়ালিটি কন্ট্রোল প্রতিষ্ঠান ও ফ্যাশন ডিজাইন হাউস। এসব প্রতিষ্ঠানেও একজন মার্চেন্ডাইজার কাজ করতে পারেন। এ ছাড়া পোশাক শিল্প বিষয়ক কোর্সে প্রশিক্ষণপ্রাপ্তদের উপর্যুক্ত প্রতিষ্ঠানগুলোতে জেনারেল ম্যানেজার, মার্চেন্ডাইজিং, প্রোডাকশন ম্যানেজার, ফ্লোর ইনচার্জ, কোয়ালিটি কন্ট্রোলার, কোয়ালিটি কো-অর্ডিনেটর, কোয়ালিটি ইন্সপেক্টর, টেকনিক্যাল ডিরেক্টর, কমার্শিয়াল ম্যানেজার, অ্যাসিসটেন্ট প্রোডকশন ম্যানেজার, কোয়ালিটি কন্ট্রোল ম্যানেজার, সুপারভাইজার, প্রোডাকশন কো-অর্ডিনেটর ইত্যাদি পদে চাকরির সুযোগ রয়েছে।

কোথায় নেবেন প্রশিক্ষণ

  • জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে আমাদের দেশে পোশাকশিল্পে ক্যারিয়ার গড়তে ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব ফ্যাশন টেকনোলজি এবং মার্চেন্ডাইজিংয়ে উচ্চতর ডিগ্রি প্রদানের জন্য অনার্স, এমবিএসহ বিভিন্ন মেয়াদি সার্টিফিকেট ডিপ্লোমা কোর্স চালু করেছে। এই প্রতিষ্ঠানের কোর্সগুলোতে দরিদ্র, মেধাবী, মুক্তিযোদ্ধা, খেলোয়াড়, প্রতিবন্ধীদের জন্য কোটাভিত্তিক স্কলারশিপের সুযোগ রয়েছে। তাই তরুণরা পোশাক শিল্পের এই বিশাল খাতে নিজেদের সম্পৃক্ত করতে ও উন্নত ক্যারিয়ার গড়তে এই কোর্সটি করতে পারেন।favicon594

Leave a Reply