প্রোগ্রাম শিখুন ক্যারিয়ার গড়ুন

প্রোগ্রাম শিখুন ক্যারিয়ার গড়ুন

  • ক্যারিয়ার ডেস্ক

সাধারণত কাজের ধরন অনুযায়ী প্রোগ্রামারদের চাকরিতে নিয়োগ দেওয়া হয়। যেসব প্রোগ্রাম জানলে চাকরি পাওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায়, জরিপের ভিত্তিতে সেগুলোর একটি তালিকা তৈরি করেছে বিশ্বের খ্যাতনামা সাময়িকী বিজনেস ইনসাইডার।


জাভা

কোনো প্রতিষ্ঠানের জন্য হিসাবরক্ষণের সফটওয়্যার তৈরি করতে হলে সেই অফিসের কর্মী, আসবাব, নথি, ক্রেতা বা ভোক্তার তালিকা, আয়-ব্যয়—সব কিছুর তথ্য সঠিকভাবে থাকতে হবে। এ ক্ষেত্রে সফটওয়্যার নির্মাতাকে কিউ, উইন্ডো, চেক বক্স ইত্যাদি তৈরি করতে হয়। কম্পিউটার প্রোগ্রামিংয়ের ভাষায় এগুলোকে ‘অবজেক্ট’ বলে। প্রোগ্রামিংয়ে অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে অবজেক্ট নির্ধারণ। অবজেক্ট নির্ধারণ সঠিক না হলে সফটওয়্যার বা অ্যাপলিকেশন শতভাগ কার্যকর হবে না। এসব তৈরিতে সবচেয়ে কার্যকর প্রোগ্রামিং ভাষা ‘জাভা’। কম্পিউটার বিজ্ঞানের ভাষায় তাই জাভাকে ‘অবজেক্ট-ওরিয়েন্টেড’ ভাষা বলা হয়।

সিলিকন ভ্যালির সান মাইক্রোসিস্টেম নব্বইয়ের দশকের গোড়ার দিকে প্রোগ্রামিং ভাষা হিসেবে জাভা তৈরি করে। নিরাপত্তা ও ওয়েবের অন্যান্য প্রযুক্তির (টুল) সঙ্গে দ্রুত খাপ খাইয়ে নেওয়ার সুবিধার জন্য দ্রুত জনপ্রিয়তা পায় ভাষাটি। মোবাইলে বহুল ব্যবহৃত অ্যানড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমের অ্যাপলিকেশন তৈরিতে জাভার বিকল্প নেই। ব্যবসায়িক বিভিন্ন সফটওয়্যার তৈরিতেও জাভা কাজে লাগে। দেশ-বিদেশে চাকরির বাজারে জাভা প্রোগ্রামারদের চাহিদা সবচেয়ে বেশি। বিশেষ করে বিশ্বজুড়ে স্মার্টফোন ব্যবহার বেড়ে যাওয়ায় অ্যাপ তৈরিতে জাভার ব্যবহার বাড়ছে।

প্রশিক্ষণকেন্দ্রের পাশাপাশি ঘরে বসে অনলাইনেও জাভা শেখা যায়। বাংলা ভাষায় লেখা জাভা নিয়ে নির্দেশিকা পাওয়া যাবে http://java.howtocode.com.bd/- এ। https://goo.gl/lYeukx এবং https://goo.gl/l3r890- এ পাওয়া যাবে বাংলা ভাষায় তৈরি ভিডিও টিউটরিয়াল।

ইংরেজিতে হলেও https://goo.gl/Szxvw7 এবং https://goo.gl/gzDjwO সাইট দুটি জাভা শিখতে কাজে আসবে।

সি

‘সি’ দিয়ে তৈরি প্রোগ্রাম যেকোনো অপারেটিং সিস্টেমের কম্পিউটারে চালানো যায়। এই সুবিধার জন্য সি বহুল প্রচলিত ও জনপ্রিয় প্রোগ্রামিং ভাষা। বিভিন্ন ডেস্কটপ সফটওয়্যার ও ভিডিও গেইম সি দিয়ে তৈরি। অন্যান্য প্রোগ্রামিং ভাষা তৈরিতেও সি ব্যবহার করা হয়।

ইউনিক্স অপারেটিং সিস্টেমে কোড লেখা সহজ করতে সত্তরের দশকে ভাষাটি তৈরি হয়।

দেশের জনপ্রিয় প্রোগ্রামিংবিষয়ক লেখক তামিম শাহরিয়ারের সি নিয়ে লেখা নির্দেশিকা পাওয়া যাবে http://cpbook.subeen.com/-এ। http://goo.gl/ICm4tp-এ গিয়ে বাংলায় ভিডিও টিউটরিয়াল দেখেও প্রোগ্রামটি শেখা যাবে। সি নিয়ে মানসম্পন্ন নির্দেশিকা আছে http://www.cprogramming.com/ এবং https://goo.gl/Y5gcBg সাইটেও।

পাইথন

লিনাক্স, ম্যাক ওএসএক্স ও উইন্ডোজ—তিন ধরনের অপারেটিং সিস্টেমেই পাইথন চলে। প্রোগ্রামিংয়ের মৌলিক বিষয় জানা না থাকলে পাইথন শেখা কষ্টসাধ্য। সি বা জাভার মতো কমপক্ষে একটি প্রোগ্রামিং ভাষা সম্পর্কে ধারণা থাকলে ‘পাইথন’ শেখা সহজ হবে।

১৯৯১ সালে বাজারে আসে প্রোগ্রামটি। কোর সিকিউরিটি টুল এবং ওয়েব অ্যাপলিকেশনের ক্ষেত্রে উচ্চমানের তথ্য নিরাপত্তাব্যবস্থা থাকায় ইউটিউব, বিটটরেন্ট, গুগল ও নাসার বিভিন্ন প্রকল্পে পাইথন ব্যবহার করা হয়েছে।

https://goo.gl/bgsK2 সাইটে গল্পের ছলে পাইথন শেখা যাবে। https://goo.gl/p1OcdZ-এ রয়েছে পাইথন নিয়ে ভিডিও লেকচার। https://goo.gl/O7mVr3 ব্লগে ইংরেজিতে পাইথন নিয়ে বিভিন্ন নির্দেশিকা পাওয়া যায়।

বাংলাদেশে পাইথন প্রোগ্রামারদের ফেইসবুক গ্রুপ https://www.facebook.com/groups/pythonbd/

পিএইচপি

প্রোগ্রামটি তৈরি হয় ১৯৯৫ সালে। ওয়েবসাইট তৈরিতে বর্তমানে সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত হচ্ছে পিএইপি। উইকিপিডিয়ার তথ্য অনুযায়ী, ২০ লাখের বেশি ওয়েবসাইট ও ১০ লাখ ওয়েব সার্ভারে পিএইচপি ব্যবহৃত হচ্ছে। বেশির ভাগ অপারেটিং সিস্টেমে প্রোগ্রামটি বিনা মূল্যে ব্যবহার করা যায়। নতুনদের জন্য https://goo.gl/nPRad8 সাইটে পিএইচপি নিয়ে বাংলা ভাষায় টিউটরিয়াল রয়েছে। ইংরেজি ভাষায় পিএইচপি শিখতে https://goo.gl/LOc2cv এবং https://goo.gl/e3K3zY বেশ সহায়ক।

ভিজ্যুয়াল বেসিক

পুরনো প্রোগ্রামিং ভাষা ‘বেসিক’-এর উন্নত সংস্করণ হিসেবে ১৯৯১ সালে ‘ভিজ্যুয়াল বেসিক’ বাজারে আনে মাইক্রোসফট। কম্পিউটারের ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত প্রোগ্রামিং ভাষা এটি। পুরনো হলেও এখনো ভাষাটির বেশ কদর আছে। গ্রাফিকসের ব্যবহার আছে এমন ইন্টারফেস ও তথ্যভাণ্ডার (ডাটা বেইস) তৈরিতে এই ভাষার ব্যবহার বেশি।

ভিজ্যুয়াল বেসিক নিয়ে ভিডিও টিউটরিয়াল পাওয়া যাবে https://goo.gl/QFMnYP-এ। https://goo.gl/I88UqH-এও পাওয়া যাবে কিছু কার্যকর নির্দেশিকা।

জাভা স্ক্রিপ্ট

নামে জাভার কাছাকাছি হলেও জাভা স্ক্রিপ্ট সম্পূর্ণ ভিন্ন ধরনের ভাষা। মূলত ওয়েবনির্ভর অ্যাপলিকেশন তৈরিতে জাভা স্ক্রিপ্ট ব্যবহৃত হয়।

জাভা স্ক্রিপ্টের সাহায্যে ওয়েবসাইটকে আরো সুন্দর করে তোলা যায়। বাংলায় এর টিউটরিয়াল রয়েছে https://goo.gl/fUD3Ub ঠিকানায়। পাশাপাশি https://goo.gl/fXASxF-এও জাভা স্ক্রিপ্ট নিয়ে ধারাবাহিক নির্দেশিকা পাওয়া যাবে।

আর

উন্মুক্ত কম্পিউটার প্রোগ্রামিং ভাষা ‘আর’। পরিসংখ্যানবিষয়ক অ্যাপলিকেশন তৈরিতে প্রোগ্রামটির ব্যবহার বেশি। গ্রাফিক্যাল প্রোগ্রামেও এর ব্যবহার আছে।

https://goo.gl/KZH3BK এবং https://goo.gl/cVol9R-এ গিয়ে ভিডিও টিউটরিয়াল দেখে শেখা যাবে ভাষাটি।

বাংলা ভাষায় প্রোগ্রামটি শেখা যাবে https://goo.gl/oFYaa3-এ গিয়ে।

গো

‘গো’ গুগলের তৈরি প্রোগ্রামিং ভাষা। পাইথনের সঙ্গে এই ভাষার সামঞ্জস্য আছে।

https://goo.gl/CiNX0n-এ গিয়ে ভাষাটি শেখা যাবে। বাংলা ভাষায় গো শেখা যাবে https://goo.gl/hGOQTV ঠিকানায়।

রুবি

‘রুবি’ ব্যবহার করে ডেস্কটপ ও ওয়েব অ্যাপ তৈরি করা যায়। এই ভাষার কোড নিয়ন্ত্রণ সহজ। কোন কোড কী উদ্দেশ্যে লেখা তা অল্পতেই বোঝা যায়।

রুবি শিখতে বিনা মূল্যের টিউটরিয়াল মিলবে https://goo.gl/nXZJFQ ঠিকানায়। http://ruby-for-beginners.rubymonstas.org/-এ গিয়ে নতুনরা ধারাবাহিকভাবে শিখতে পারবেন ভাষাটি।

সুইফট

অ্যাপলের প্রোগ্রামিং ভাষা ‘সুইফট’। সির চেয়েও দ্রুত কাজ করে ভাষাটি। সুইফটে কোড লেখার সঙ্গে সঙ্গে তার ফলাফল দেখতে পারবেন প্রোগ্রামার। https://goo.gl/lzkLsr-এ গিয়ে সুইফট শেখা যাবে বিনা মূল্যে। https://goo.gl/QAyYb4-এ গিয়ে ভিডিও দেখে সুইফট শেখাও নতুনদের জন্য সহায়ক হবে।

অবজেক্টিভ সি

এটি মূলত ম্যাক ওএসএক্স এবং আইফোন ওএসে ব্যবহৃত হয়। বাংলায় শেখা যাবে https://goo.gl/tyGvHA থেকে।

ম্যাটল্যাব

প্রকৌশল ও বৈজ্ঞানিক নানা ক্ষেত্রে গাণিতিক হিসাব করার সফটওয়্যার ম্যাটল্যাব। মূলত ম্যাট্রিক্সের হিসাব-নিকাশ করার টুল ও কাজে এটি ব্যবহার করা হয়।

বাংলা ভাষায় https://goo.gl/hG2V86-

এ গিয়ে ম্যাটল্যাবের টিউটরিয়াল পাওয়া যাবে বিনা মূল্যে।এ ছাড়া গ্রেবি, অ্যাসেমবলি, জে, প্যাসকেল ও ভাষার প্রোগ্রামারদের চাহিদা রয়েছে বিশ্বজুড়ে।

সূত্র: বিজনেস ইনসাইডারfavicon59-4

Leave a Reply