উদ্যমী উদ্যোক্তা মীর শাহরুখ

উদ্যমী উদ্যোক্তা মীর শাহরুখ

  • উদ্যোক্তা ডেস্ক

মীর শাহরুখ ইসলাম একজন উদ্যমী উদ্যোক্তা, উদ্ভাবক ও টেক প্রিয় মানুষ; যিনি এখন কাজ করে যাচ্ছেন ইন্টারনেট অব থিংস আর ডিজিটাল সার্ভিস ইন্ডাস্ট্রি নিয়ে। শাহরুখের ক্যারিয়ারের শুরুটা সম্পূর্ণ তরুণ বয়সেই। আইইউটির ইলেক্ট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ছাত্র ছিলেন তিনি। ছাত্রাবস্থাতেই তিনি কাজ করা শুরু করেন, যা পরবর্তীতে তার ব্যবসা এগিয়ে নেওয়ার ক্ষেত্রে বিশাল অবদান রাখে। অল্প সময়েই তার প্রথম উদ্যোগ ‘সিঙ্গুলারিটি ইন্টার‌্যাকটিভ’ সাফল্যের মুখ দেখে।

সিঙ্গুলারিটি ইন্টার‌্যাকটিভ মূলত একটি ডিজিটাল মার্কেটিং ফার্ম, যেখানে অ্যানিমেশন, ভিএফএক্স, এভি ও অন্যান্য বিভিন্ন ধরনের ভিজ্যুয়াল কন্টেন্টের কাজ করা হয়। একই সঙ্গে প্লাটফর্ম সলিউশন হিসেবে মোবাইল অ্যাপস ও সফটওয়্যার সাপোর্ট দেওয়া হয়। ভার্চুয়াল রিয়েলিটি, অগমেন্টেড রিয়েলিটির মতো অ্যাডভান্সড কন্টেন্ট নিয়েও কাজ করে এই ভেনচার। পরবর্তীতে ডিজিটাল মার্কেটিং এজেন্সি হিসেবে সিঙ্গুলারিটি ইন্টার‌্যাকটিভ  ইউনিলিভার, ব্রিটিশ আমেরিকান টোবাকো, গুগল, টেলিনর, এক্সিয়াটার মতো নামকরা কোম্পানির সঙ্গে কাজ করে।

মানুষ হিসেবে শাহরুখ সবসময়ই ব্যতিক্রমী চিন্তার অধিকারী। তার এই ভাবনার প্রকাশ ঘটে তার কাজের মাধ্যমেই। এমনই এক ভাবনার ব্যতিক্রমী চিন্তার বহিঃপ্রকাশ ছিল ‘সিঙ্গুলারিটি ইন্টার‌্যাকটিভ’ থেকে গুগলের রিজিওনাল ক্যাম্পেইনে গুগলের জন্য বানানো সুডো আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স সমৃদ্ধ হিউম্যানোয়েড রোবট।

কাজের দূরদর্শিতা থেকেই শাহরুখ অনুধাবন করতে পারেন চতুর্থ ইন্ডাস্ট্রিয়াল রেভ্যুলেশন খুব দূরে নয়। আর এই রেভ্যুলেশনের ফলাফলও তার অনুমিতই। আর সেই বিশ্বাস থেকে তিনি ‘বন্ডস্টাইন টেকনোলজিস লিমিটেড’ নামে আরেকটি উদ্যোগ শুরু করেন। তার সবচেয়ে জনপ্রিয় উদ্ভাবন ‘ট্র্যাক মাই ভেহিক্যাল’ এই উদ্যোগেরই প্রজেক্ট। ট্র্যাক মাই ভেহিক্যাল মূলত খুবই সহজ ট্র্যাকিং সিস্টেম । গাড়ির সকল ডাটা অ্যানালাইজ করে ব্যবহারকারীকে নিরাপদ এবং কম খরচে গাড়ি রক্ষণাবেক্ষনের পন্থাও বের করে দেয়। এই প্রজেক্টটি এতই সাড়া ফেলে যে প্রথম বছরেই পুরো এশিয়ার সেরা ১০০ স্টার্ট আপের মধ্যে জায়গা করে নেয়। পাশাপাশি এক্সিয়াটা গ্রুপের সঙ্গেও কাজ শুরু করে পার্টনারশিপে।

বর্তমানে ‘ট্র্যাক মাই ভেহিক্যাল’ বাংলাদেশসহ কুয়েত আর নেপালে চালু রয়েছে। ‘বন্ডস্টাইন’ এরই মাঝে ওয়ার্ল্ড ব্যাংকের তরফ থেকে সিটিজেন সার্ভিসে টেকনোলজির ব্যবহার বিষয়ে প্রজেক্টে কাজ করার জন্য নিযুক্ত হয়েছে। শাহরুখ ওয়ার্ল্ড ইকোনোমিক ফোরামের ঢাকা হাবের একজন গ্লোবাল শেপারও বটে। এছাড়া তিনি আন্তর্জাতিক রোবোটিকস চ্যালেঞ্জে বাংলাদেশ টিমের সদস্যও ছিলেন। এছাড়াও সক্রিয় সদস্য হিসেবে আছেন বেসিস, আইএম এসএমই, বাংলাদেশ জুনিয়র চেম্বার ইন্টারন্যাশনাল-সহ আরও অনেক সংগঠনে ।

সূত্র: ইত্তেফাকfavicon59-4

Leave a Reply