ভ্রমণ নিয়ে প্রমির উদ্যোগ

ভ্রমণ নিয়ে প্রমির উদ্যোগ

  • উদ্যোক্তা ডেস্ক

সাফল্যের শুরুটা হতে পারে যেকোনো সময়, যেকোনো বয়সে। প্রয়োজন শুধু ইচ্ছে আর পরিশ্রমের দুর্লভ মিশেল। এরই এক উদাহরণ প্রমি ইসলাম, জনপ্রিয় ট্রাভেল এজেন্সি ‘চল ঘুরি’-এর প্রতিষ্ঠাতা।

নিজে অনেক ঘোরাঘুরি করেন বলে ঘোরাঘুরি নিয়ে কিছু করার ইচ্ছা প্রমির সবসময়ই ছিল। এমন একটা প্লাটফর্ম বানানোর চিন্তা সবসময় মাথায় ঘুরত যেখানে মানুষ খুব সহজেই ভ্রমণসম্পর্কিত সব সেবা একসঙ্গে পেয়ে যাবে। নিজেই নিজের ইচ্ছামতো ভ্রমণের প্ল্যান করে ফেলতে পারবে। এটা থেকেই চল ঘুরির যাত্রা শুরু। ২০১৫ সালের শেষের দিকে প্রমি যখন ইসলামিক ইউনিভার্সিটি অব টেকনোলজির তৃতীয় বর্ষে পড়েন, তখন তিনি আর তার বন্ধু আসিফ ইকবাল প্রথমে চল ঘুরি নিয়ে একটা প্ল্যান করেন। খুবই প্রাথমিক পর্যায়ের কিছু কাজ। কিন্তু তারপর হাতে কলমে কাজ করতে গিয়ে দেখেন এটা নিয়ে কাজ করতে ট্রাভেল সম্পর্কিত জ্ঞান ছাড়াও প্রজুক্তি নিয়ে অনেক জ্ঞান থাকা লাগবে। তাই তারা সঙ্গে তাদের আরও দুই বন্ধু রাফি ও সোয়েবের শরণাপন্ন হন। সেই থেকেই চলছে তাদের অবিরত পথচলা। শুরু থেকে ভ্রমণের সঙ্গে প্রযুক্তির বিভিন্ন বিষয়কে একাত্ম করার প্রচেষ্টায় কাজ শুরু করেন তারা।

চল ঘুরি হলো এমন একটা প্লাটফর্ম, যেখানে হাজার রকমের ট্রাভেল প্রোডাক্ট (হোটেল, এয়ার টিকেট, হলিডে) পাওয়া যায়, যদিও তারা অফলাইনে কাজ শুরু করেন, এখন আস্তে আস্তে সম্পূর্ণ অনলাইন ভিত্তিক ট্রাভেল কোম্পানি হয়ে যাচ্ছে। গত এক বছরে চল ঘুরি প্রায় ৫০০ হলিডে প্যাকেজ বিক্রয় করেছে, যা এক বিশাল সাফল্য। চল ঘুরি প্রথম থেকেই এমন অভিনব ভ্রমণ অভিজ্ঞতা দিচ্ছে, যা তাদেরকে অন্য ট্রাভেল কোম্পানিগুলো থেকে সহজেই আলাদা অবস্থানে নিয়ে গেছে। সেই সঙ্গে তারা বিটুসির পাশাপাশি বিটুবির দিকেও নজর দিচ্ছে যাতে ঢাকার বাইরের স্বল্প পরিসরে গড়ে ওঠা ট্রাভেল এজেন্সিগুলো তাদের কাছে প্রোডাক্ট সেল করতে পারে।

সদ্য স্নাতক পাস করা প্রমি ইসলামকে কাজের ক্ষেত্রে কী কী সমস্যার সম্মুখীন হয়েছেন জানতে চাইলে বলেন, ‘একটু সমস্যা মাঝে মাঝে অবশ্যই হয়েছে। পড়াশোনা আর কাজ একসঙ্গে ভারসাম্য রাখা সহজ না। তবে নিজের আত্মবিশ্বাস আর সবার সহযোগিতায় সব কিছুই উতরে গিয়েছি সাফল্যের সঙ্গে। এজন্য আমি যেমন আমার পরিবারের কাছে কৃতজ্ঞ, ঠিক তেমই কৃতজ্ঞ আমার বন্ধু এবং বড় ভাইদের কাছে।’ অল্প বয়সেই যেই মানুষ নিজের সাফল্যকে এতদূর নিয়ে এসেছেন তার ভবিষ্যত্ পরিকল্পনাও নিশ্চয়ই তেমনি থাকবে। এই নিয়ে জানতে চাইলে প্রমি স্বপ্নালু চোখে বলেন, ‘আমাদের পরবর্তী ইচ্ছ হলো অনলাইন ফ্লাইট এবং হোটেল বুকিং পোর্টাল ও অ্যাপ চালু করা, যেটা দিয়ে সবাই নিমিষেই যেকোনো গন্তব্যর টিকেট অথবা হোটেল বুক করতে পারবে এবং বাংলাদেশি ক্রেডিট বা ডেবিট, বিকাশ, অনলাইন ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে টাকা দিতে পারবে। আমরা এরমধ্যে এই ধাপের ৫০ ভাগ কাজ শেষ করে ফেলেছি, খুব জলদি আমরা এটা মার্কেটে নিয়ে আসব। আর তার সঙ্গে সঙ্গে আমাদের বর্তমান হলিডে প্যাকেজ সিস্টেমকে প্রযুক্তিগতভাবে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া যাতে মানুষ ঘরে বসে সহজেই তার হলিডে প্ল্যান করে ফেলতে পারে।’ শুভ কামনা প্রমি ইসলামের জন্য!

সূত্র: প্রথম আলোfavicon59-4

Leave a Reply