স্ল্যাশ বাংলাদেশ পর্বে বিজয়ী তিন উদ্যোগ

স্ল্যাশ বাংলাদেশ পর্বে বিজয়ী তিন উদ্যোগ

  • উদ্যোক্তা ডেস্ক

প্রযুক্তিভিত্তিক নতুন উদ্যোগ (স্টার্টআপ) নিয়ে ইউরোপের সবচেয়ে বড় আয়োজন স্ল্যাশ ২০১৭ গ্লোবাল ইমপ্যাক্ট এক্সিলারেটরের বাংলাদেশ পর্বে তিনটি উদ্যোগ নির্বাচিত হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ে তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি (আইসিটি) বিভাগে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে এই প্রতিযোগিতার ফলাফল ঘোষণা করা হয়। শীর্ষ তিনটি উদ্যোগ হলো যথাক্রমে সার্জ ইঞ্জিনিয়ারিং, বাইনো অ্যাপ ও জলপাই ইলেকট্রনিকস।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহ্‌মেদ বলেন, ‘এ ধরনের বৈশ্বিক প্রতিযোগিতায় অভিজ্ঞতা অর্জনের পাশাপাশি জ্ঞান বিনিময় করতে পারেন প্রতিযোগীরা। আমরা গবেষণা করে দেখেছি, প্রাথমিক বিনিয়োগের অভাবে ধারণা পর্যায় থেকে শুরু করে একটু বেড়ে ওঠার পরই বেশির ভাগ উদ্যোগ ঝরে পড়ে। তাই আইসিটি বিভাগ এ ধরনের উদ্যোগগুলোর বিভিন্ন পর্যায়ে বিভিন্ন অঙ্কের উদ্ভাবনী তহবিল দিচ্ছে।’

মোবাইল ফোন সংযোগদাতা প্রতিষ্ঠান গ্রামীণফোনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মাইকেল ফোলি অনুষ্ঠানে বলেন, বাংলাদেশে জ্ঞাননির্ভর অর্থনীতির অবকাঠামো তৈরি হচ্ছে। তাই নতুন নতুন উদ্যোগগুলোর জন্য ফোরজি প্রযুক্তি দরকার।

ফলাফল শোনার পর সার্জের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নিলয় দাশ প্রথম আলোকে বলেন, বহনযোগ্য জৈবগ্যাস উৎপাদনব্যবস্থা নিয়ে কাজ করছে সার্জ। মাইক্রোটেক ইন্টার‍্যাকটিভের ‘বাইনো’ অগমেন্টেড রিয়েলিটি প্রযুক্তির অ্যাপ। এতে শিশুরা বই পড়তে পারে। অন্যদিকে জলপাই ইলেকট্রনিকস তৈরি করেছে স্নাইপার যন্ত্র। এটি গ্যাস লিকেজজনিত দুর্ঘটনার ঝুঁকি এড়াতে সতর্ক করে।

বাংলাদেশ পর্বে আবেদন করেছিল ১১৩টি স্টার্টআপ। এর মধ্যে প্রাথমিকভাবে বাছাই করা হয়েছিল ৩৮টি উদ্যোগকে। ৫ আগস্ট এই ৩৮টি উদ্যোগ নিয়ে চলে বিচারকাজ। এমসিসি লিমিটেডের সহযোগী প্রতিষ্ঠান এম-ল্যাব বাংলাদেশে এই আয়োজন করেছে। সহায়তা করেছে হোয়াইট বোর্ড।

এই তিন বিজয়ী উদ্যোগের সদস্যরা স্ল্যাশের বিচারকদের কাছে নিজের উদ্যোগকে তুলে ধরবেন। তারপর চূড়ান্ত করা হবে এ বছরের শেষের দিকে ফিনল্যান্ডে অনুষ্ঠেয় স্ল্যাশের মূল পর্বে কারা অংশ নেবে।favicon59-4

Leave a Reply