গেট ইন দ্য রিং : জাতীয় পর্যায়ে নির্বাচিত ১২ প্রতিযোগী

গেট ইন দ্য রিং : জাতীয় পর্যায়ে নির্বাচিত ১২ প্রতিযোগী

  • উদ্যোক্তা ডেস্ক

গেট ইন দ্য রিং ঢাকা-২০১৮ প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে ১২ জন প্রতিযোগী চূড়ান্তভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। গত ২১ এপ্রিল ২০১৮ তারিখে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির স্থায়ী ক্যাম্পাস আশুলিয়ায় এ চূড়ান্ত নির্বাচনী পর্ব অনুষ্ঠিত হয়। ২০১৫ সাল থেকে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি নিয়মিতভাবে গেট ইন দ্য রিং প্রতিযোগিতা জাতীয় পর্যায়ে আয়োজন করে আসছে।

জাতীয় পর্যায়ের চূড়ান্ত পর্বে মোট ৩৫৮টি ব্যবসায়িক মডেল উপস্থাপিত হয়। এর মধ্যে ১২টি দলকে চূড়ান্তভাবে নির্বাচিত করা হয়। নির্বাচিত দলগুলো হচ্ছে: জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়, খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (কুয়েট), বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালস (বিইউপি), ব্র্যাক ইউনিভার্সিটি, নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটি, ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি, আহসানউল্লাহ ইউনিভার্সিটি অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি, ইউনিভার্সিটি অব ডেভলপমেন্ট অল্টারনেটিভ (ইউডা), দি টেকনিক্যাল ইউনিভার্সিটি অব অ্যাপ্লাইড সায়েন্স, জার্মানি এবং ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি।

নির্বাচিত এই ১২টি দল আগামী ৩০ এপ্রিল ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির স্থায়ী ক্যাম্পাসে অনুষ্ঠিত গ্রান্ড ফিনালেতে অবতীর্ন হবে এবং সেই পর্বে বিজয়ী দল আগামী মে মাসে নেদারল্যান্ডে অনুষ্ঠিত গ্লোবাল মিটআপে অংশগ্রহণের সুযোগ পাবে।

প্রতিযোগিতার জুড়ি বোর্ডের সদস্য হিসেবে ছিলেন ফিউচার লিডার্সের প্রধান পরামর্শক ও প্রধান নির্বাহী কাজী এম আহমেদ, বাংলাদেশ ভেঞ্চার ক্যাপিটাল লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক গোলাম মনোয়ার কামাল, ক্যারিয়ার ডেভলপমেন্ট সেন্টারের পরিচালক আবু তাহের খান, ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট বিভাগের প্রধান মাহবুব পারভেজ, এন্ট্রাপ্রেনারশিপ বিভাগের প্রধান মোহাম্মদ শিবলী শাহরিয়ার ও ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের জ্যেষ্ঠ প্রভাষক সাবিহা মতিন।  অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করেন শীর্ষস্থানীয় কর্পোরেট লিডার ও জনপ্রিয় কমেডিয়ান নাভিদ মাহবুব।

নতুন স্টার্টআপদের জন্য গেট ইন দ্য রিং ফাউন্ডেশন একটি বৈশ্বিক মঞ্চ। এর মাধ্যমে নতুন উদ্যোক্তারা পরষ্পরের সঙ্গে শক্তিশালী যোগাযোগ তৈরি করতে পারেন এবং এর মাধ্যমে তাদের ব্যবসায়ের উন্নয়ন ঘটাতে পারেন। গেট ইন দ্য রিং ফাউন্ডেশন বিশ্বের শতাধিক দেশে উদ্যোক্তা উন্নয়নে কাজ করছে। প্রতিযোগিতাটি এর ইনোভেটিভ ফরমেটের জন্য বিশ্বব্যাপী সমাদৃত। এখানে দুটি স্টার্টআপকে মুখোমুখি লড়াইয়ে অবতীর্ণ হতে হয় এবং ৫-৩০ সেকেন্ডের মধ্যে নিজেদের দলের অর্জন ও ব্যবসায়িক মডেল উপস্থাপন করতে হয়।   

Leave a Reply