চার উদ্যোক্তা পেল প্রশিক্ষণ

চার উদ্যোক্তা পেল প্রশিক্ষণ

  • উদ্যোক্তা ডেস্ক

স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক বিনিয়োগকারীদের উপস্থিতিতে জিপি অ্যাকসেলেরেটরের পঞ্চম ব্যাচের উদ্যোক্তারা নিজেদের ধারণার উপস্থাপন করেছে। অ্যাকসেলেরেটর কর্মসূচিতে চার মাস প্রশিক্ষণ শেষে উদ্যোক্তারা নিজেদের উদ্যোগ সম্পর্কে তথ্য তুলে ধরে। ওই চারটি স্টার্টআপ হলো সার্চ ইংলিশ, পার্কিং কই, সিওয়ার্ক ও অনুকিট।

গ্রামীণফোনের বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, কয়েক বছর ধরে স্টার্টআপ বা উদ্যোগগুলোকে যথাযথ প্রশিক্ষণ ও সাহায্য করতে অ্যাকসেলেরেটর কর্মসূচি চালানো হচ্ছে। গত কয়েক বছরে তথ্যপ্রযুক্তি খাতে এবং স্টার্টআপের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ সাফল্য দেখিয়েছে। বেশ কয়েকটি স্টার্টআপ বৈশ্বিকভাবে নিজেদের বিস্তৃতি ঘটিয়েছে এবং এর মধ্যে কয়েকটি স্টার্টআপ উল্লেখযোগ্য পরিমাণ বিদেশি বিনিয়োগ নিয়ে এসেছে।

গ্রামীণফোনের প্রধান নির্বাহী মাইকেল ফোলি বলেন, প্ল্যাটফর্মটি বাংলাদেশে একটি শক্তিশালী স্টার্টআপ ইকো সিস্টেম গড়ে তুলেছে এবং দ্রুত দেশের সবচেয়ে আকর্ষণীয় মেন্টরশিপ কর্মসূচিতে পরিণত হয়েছে। জিপি অ্যাকসেলেরেটর একটি উদ্ভাবনী প্ল্যাটফর্ম, যা স্টার্টআপগুলোকে আন্তর্জাতিক ও স্থানীয় প্রশিক্ষকদের সঙ্গে চার মাসমেয়াদি মেন্টরশিপ কর্মসূচির সুযোগ করে দেয়। নির্বাচিত স্টার্টআপরা ৮ শতাংশ ইক্যুইটির বিপরীতে সিডফান্ডিং হিসেবে পায় ১৫ হাজার মার্কিন ডলার। এ ছাড়া স্টার্টআপগুলো ১১ হাজার ২০০ মার্কিন ডলার সমমূল্যের অ্যামাজন ওয়েব সার্ভিস ক্রেডিট (এডব্লিউএস) পায়।

এবারের স্টার্টআপগুলোর মধ্যে সার্চ ইংলিশ হচ্ছে অনলাইনে ইংরেজি শেখার প্ল্যাটফর্ম। পার্কিং কই অ্যাপের মাধ্যমে আশপাশে পার্কিং পাওয়া যায়। সিওয়ার্ক মাইক্রো জব প্ল্যাটফর্ম আর অনুকিট অ্যাপ এসএমইগুলোকে তাদের দৈনন্দিন যোগাযোগকে কার্যকরী উপায়ে করার ব্যাপারে সহায়তা করবে।

Leave a Reply