ড্যাফোডিলে ‘মমপ্রেনার্স হাট ও সনদ বিতরণী’ অনুষ্ঠিত

ড্যাফোডিলে ‘মমপ্রেনার্স হাট ও সনদ বিতরণী’ অনুষ্ঠিত

  • উদ্যোক্তা ডেস্ক

ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল ‘মমপ্রেনার্স হাট এবং সনদ বিতরণী’ অনুষ্ঠান। ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির এন্ট্রপ্রেনারশিপ বিভাগ, ড্যাফোডিল স্কুল ও বিএসডিআইয়ের আয়োজনে আজ ২১ জুলাই, রবিবার  ইউনিভার্সিটির মিলনায়তন ৭১ এ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন মাননীয় সংসদ সদস্য শামীমা শাহরিয়ার। এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন বাংলাদেশ রোবট অলিম্পিয়াডের প্রেসিডেন্ট ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রোবটিকস ও মেকাট্রনিক্স বিভাগের চেয়ারপার্সন অধ্যাপক ড. লাফিফা জামান এবং সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ড্যাফোডিল ফ্যামিলির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ নুরুজ্জামান। এছাড়াও অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ স্কিল ডেভলপমেন্ট ইনস্টিটিউটের (বিএসডিআই) উপদেষ্টা কে. এম. হাসান রিপন, ড্যাফোডিল কলেজের অধ্যক্ষ লেফটেন্যান্ট কর্নেল (অব.) জহিরুল ইসলাম, ড্যাফোডিল স্কুলের প্রধান শিক্ষক ড. মাহমুদুল ইসলাম প্রমুখ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে শামীমা শাহরিয়ার বলেন, ‘নারীরা যে এগিয়ে যাচ্ছে তার পিছনে অবশ্যই পুরুষের অবদান রয়েছে। উদোক্তারা এই সময়ের অনেক বড় শক্তি। তাঁরাই ভবিষ্যতে কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করবে।’ যুব উন্নয়নের প্রশিক্ষণের মাধ্যমে ১৯৯০ সালে ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্পে কাজ শুরু করেন বলে জানান শামীমা শাহরিয়ার। তিনি বলেন, ‘আমার স্বপ্ন পূরণের অনেক অংশ বাস্তবায়িত হয়েছে এই অনুষ্ঠানের মাধ্যমে।’

বিশেষ অতিথি অধ্যাপক ড. লাফিফা জামান বলেন, ‘শেখার কোনো শেষ নেই, শেখার কোনো বয়স নেই।’ বর্তমানে আমাদের সব মায়েদের উচিত ছেলে মেয়েরা যে কাজে বেশি আগ্রহ সেই কাজে যেন তারা উৎসাহিত করেন। ছেলে মেয়েরা যেন সঠিক প্রতিভায় বিকশিত হতে পারে।’

ড্যাফোডিল ফ্যামিলির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ নুরুজ্জামান অনুষ্ঠান সম্পর্কে বলেন, ‘এই হাটে সবাই  আসতে পারে না। তিনি আরো বলেন,উদোক্তা মায়েরা অধিকতর চ্যালেঞ্জিং হয়  এবং অভীষ্ট লক্ষ্যে পৌঁছতে সক্ষম হয়। অনুষ্ঠানের শেষ পর্যায়ে মমপ্রেনরের ২য় ব্যাচের প্রশিক্ষার্থীদের মাঝে সনদ বিতরণ করেন মাননীয় সংসদ সদস্য।

Leave a Reply