বাড়িয়ে নিন স্মৃতিশক্তি

বাড়িয়ে নিন স্মৃতিশক্তি

মোস্তাফিজুর রহমান : স্মৃতিশক্তি মানুষের অমুল্য সম্পদ, জীবন চালানোর প্রধান হাতিয়ার। আর এই স্মৃতি রক্ষার মহান দায়িত্ব পালন করে মস্তিষ্কের মধ্যে থাকা নিউরণ। কোন কারনে নিউরণ ক্ষতিগ্রস্থ হলে মানুষের স্মৃতিশক্তি লোপ পায়। যেমন, মাথায় আঘাত পাওয়া, ঔষধের প্রতিক্রিয়া, বেশি বেশি নেশা করা, মনে গভীর কোন আঘাত পাওয়া, অতিরিক্ত ইন্টারনেট আসক্তি। এছাড়া রক্তচাপ, হাঁপানি এবং পেটের অভ্যান্তরে ক্ষত নিউরণের কর্মক্ষমতা লোপ পাওয়ার কারণ। যেভাবেই হোক, স্মৃতিশক্তি লোপ পেলে জীবনে চরম বিপর্যয় নেমে আসতে পারে। তাই স্মৃতি রক্ষায় সচেতন হোন। স্মৃতিভ্রমের উপসর্গ দেখা দেওয়ার আগেই সচেতন হয়ে মস্তিষ্কের যত্ন নিন। তাকে সতেজ, কর্মক্ষম রাখুন আবার প্রয়োজন মত বিশ্রামও দিন। জেনে নিন নিউরণের কর্মক্ষমতা অর্থাৎ স্মৃতিশক্তি বাড়ানোর কিছু চমৎকার উপায়।


সঠিক খাবার নির্বাচন : স্মৃতিশক্তি ঠিক রাখতে সঠিক স্বাস্থসম্মত খাবার খাওয়ার বিকল্প নেই। সবসময় অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ খাবার খাওয়া জরুরী। যেমন: শাকসবজি এবং রঙিন ফল।

পর্যাপ্ত ঘুম : মস্তিষ্কের কর্মক্ষমতা ঠিক রাখতে এবং বাড়াতে পর্যাপ্ত ঘুম আবশ্যক। আপনি ক্রমাগত কাজ করলে ক্লান্ত হয়ে পড়বেন, যা আপনার স্মৃতিশক্তিতে আঘাত হানবে। কাজেই পরিশ্রমের সাথে পর্যাপ্ত ঘুমও জরুরী। সম্প্রতি এক গবেষণায় বলা হয়েছে, আগে যেখানে দৈনিক ৬ ঘন্টা ঘুমকে স্বাস্থের জন্য স্বাভাবিক ধরা হত, এখন সেখানে দৈনিক ৮ ঘন্টা ঘুমকে প্রাধ্যন্য দেওয়া হচ্ছে। কাজেই দৈনিক ৮ ঘন্টা ঘুম মস্তিষ্কের কর্মক্ষমতা বৃদ্ধিতে সহায়ক।

নিয়মিত ব্যায়াম : নিয়মিত ব্যায়ামের উপকারিতার কথা আমরা সবাই জানি। তবে, ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা দেখেছেন, নিয়মিত সামান্যতম ব্যায়ামও মস্তিষ্কের কর্মক্ষমতা বৃদ্ধি করে। ব্যায়াম করার পর মস্তিষ্কের মধ্যে নোরেপিনেফিরিন নামক এক ধরনের রসায়ন বেড়ে যায় যা স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধি করে। এ ছাড়া নিয়মিত ব্যায়ামের ফলে মস্তিষ্কের তথ্য ধারণ ক্ষমতাও বৃদ্ধি পায়।

সম্পূর্ণ মনোযোগ : স্মৃতিশক্তি বাড়াতে কোন কাজ সম্পূর্ণ মনোযোগ সজকারে করুন। মনোযোগ হীনতা স্মৃতিশক্তি লোপের অন্যতম কারণ। যখন যে কাজ করবেন সেই কাজে সম্পূর্ণ মনোযোগ রাখলে স্মৃতিশক্তি অনেক প্রখর হয়।

মুষ্টিবদ্ধ হাত : দুই হাত মাত্র ৯০ সেকেন্ড মুষ্টিবদ্ধ করে রাখলেই স্মৃতিশক্তি বাড়ে। এই প্রক্রিয়ায় কোন কিছু শ্রবণ করলে তা সাধারণ অবস্থার চেয়ে অনেক বেশি সহজে মনে থাকে। যুক্তরাষ্টের একদল মনোবিজ্ঞানী এক বিশেষ সমীক্ষার পর এসব তথ্য দিয়েছেন। তারা বলেন, কোনকিছু মনে রাখতে হলে হাত মুষ্টিবদ্ধ করে শোনা বা আত্মস্থ করা ভালো।

মস্তিষ্কের স্বাস্থ রক্ষায় সচেতন হোন, স্মৃতিশক্তি বাড়বে। সাথে সাথে বাড়বে আপনার সম্মানও।

হাফিংটন পোষ্ট অবলম্বনেfavicon

Leave a Reply