রক্তস্বল্পতা সবারই হয়

রক্তস্বল্পতা সবারই হয়

রিক্তা রিচি : ‘রক্তস্বল্পতা’ শব্দটি সবচেয়ে বেশি শোনা যায় মেয়ে এবং শিশুদের ক্ষেত্রে। কিন্তু চিকিৎসা শাস্ত্র বলছে, রক্তস্বল্পতা বা অ্যানিমিয়া সব বয়সী মানুষের হতে পারে। রক্তে হিমোগ্লোবিন বা লোহিত কণিকার  অভাবে রক্তস্বল্পতা দেখা যায়। রক্তস্বল্পতায় আক্রান্ত রোগীর হৃদপিণ্ডে সমস্যা, স্মৃতিশক্তি লোপ পাওয়া এমনকি নার্ভ সিস্টেম নষ্ট হয়ে যেতে পারে। একজন পূর্ন বয়স্ক মহিলার জন্য রক্তে হিমোগ্লোবিন ১২ দশমিক ১ থেকে ১৫ দশমিক ১ গ্রাম বা ডেসিলিটার, পুরুষের রক্তে ১৩৮ থেকে ১৭৭ গ্রাম/ডেসিলিটার, শিশুদের রক্তে ১১ থেকে ১৬ গ্রাম/ডেসিলিটার থাকা জরুরী।


anemiaকী কারণে রক্তস্বল্পতা

  • আয়রনের অভাব
  • ফলিক অ্যাসিডের অভাব
  • পাকস্থলিতে ইনফেকশন
  • ধুমপান
  • বয়স
  • ভিটামিন বি১২ এর অভাব
  • বিভিন্ন অসুখ ইত্যাদি

প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় কিছু খাবার রাখলে এই সমস্যা দূর করা সম্ভব। যেমন:

গরু বা খাসির কলিজা : আয়রনের অভাবে রক্তস্বল্পতা দেখা দেয়। তাই খাদ্যতালিকায় এমন খাবার রাখা উচিত যা আয়রনের ঘাটতি পূরণ করে। গরু বা খাসির কলিজায় রয়েছে প্রচুর আয়রন যা নিয়মিত খেলে রক্তস্বল্পতার অভাব দূর হয়। তবে এ কথা উল্লেখ্য যে যাদের উচ্চ রক্তচাপ রয়েছে তাদের উচিত গরু বা খাসির কলিজা থেকে দূরে থাকা।

পালং শাক : পালং শাক এ রয়েছে প্রচুর  ভিটামিন এ, বি৯, বিটা কারটিন, ক্যালসিয়াম এবং আয়রন যা রক্ত তৈরি করে থাকে। তাই পালং শাককে সুপার ফুড বলা হয়।

ড্রাই ফ্রুট :সকালের নাস্তার সঙ্গে আয়রনের ঘাটতি পূরণের জন্য আপনি খেতে পারেন কিসমিস, আমন্ড, কাজুবাদাম। এই সব খাবারে রয়েছে প্রচুর ভিটামিন সি যা আপনার শরীরের জন্য প্রয়োজন। দিনের যেকোন সময় একমুঠো বাদাম আপনার শরীরে আয়রনের ঘাটতি মেটাতে পারে।

ডালিম : নিয়মিত ডালিম খেলে রক্তস্বল্পতা দূর হয়। ডালিম দেহের রক্তপ্রবাহ সচল রাখে এবং ক্লান্তি, অবসাদ দূর করে। প্রচুর পরিমাণে আয়রন ও ভিটামিন সমৃদ্ধ এই খাবারটি প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় রাখতে পারেন।

টমেটো : টমেটোতে রয়েছে বিটা ক্যারোটিন, ফাইবার ও ভিটামিন যা শরীরের জন্য কার্যকর। এছাড়া টমেটোতে রয়েছে ভিটামিন সি যা ত্বক ও স্বাস্থ্যের জন্য ভালো।

বিট : বিট আয়রন সমৃদ্ধ । তাই এটি খুব দ্রুত রক্তস্বল্পতা দূর করে দেয়। লোহিত রক্তকণিকা বৃদ্ধিতে বিট ভূমিকা রাখে।

ডাল : প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় ডাল রাখা বুদ্ধিমানের কাজ। এক কাপ ছোলায় রয়েছে তিন থেকে পাঁচ মিলিগ্রাম আয়রন যা রক্তস্বল্পতা দূর করে। এছাড়া অন্যান্য যেকোনো ডাল আয়রনে ভরপুর।

মাছ : সামুদ্রিক মাছ সবচেয়ে ভালো আয়রনের উতস। প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় সামুদ্রিক মাছ যেমন শিং মাছ, ইলিশ মাছ, টেংরা মাছ ইত্যাদি রাখুন । এতে রয়েছে প্রচুর আয়রন যা রক্তস্বল্পতা দূর করতে সহায়ক।

সয়াবিন : সয়াবিনে রয়েছে প্রচুর ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম এবং আয়রন। নিয়মিত সয়াবিন খেলে হার্টের অসুখ ভালো থাকে, ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ার আশংকা কমে।

অন্যান্য স্বাস্থ্য সমস্যা ও রক্তস্বল্পতা দূরীকরণে উপরের খাবারগুলোর পাশাপাশি আপনি খেতে পারেন সবুজ শাকসবজি, স্যুপ, পনির, ডিম, কিসমিস ইত্যাদি। আপনার স্বাস্থ্য আপনারই সম্পদ। তাই স্বাস্থ্য সুরক্ষায় চাই সঠিক খাবার।

Leave a Reply