ফিলিপাইনে ৭ কোটি আঙুলের ছাপ বেহাত!

ফিলিপাইনে ৭ কোটি আঙুলের ছাপ বেহাত!

  • আন্তর্জাতিক ডেস্ক

নির্বাচনের মাত্র এক মাস আগে ফিলিপিন্সে ঘটে গেল ইতিহাসের এ যাবতকালের সবচেয়ে বড় সরকারি তথ্য ফাঁসের ঘটনা। প্রায় সাত কোটি মানুষের হাতের ছাপ ও পাসপোর্টের তথ্যের মতো ব্যক্তিগত তথ্য ওই হ্যাকিংয়ে চুরি করা হয়েছে। সংবাদ : বিবিসি।

বিবিসি জানায়, দ্যা ফিলিপিন্স কমিশন অন দ্যা ইলেকশনস (সংক্ষেপে কমইলেক)-এর তথ্যানুসারে তাদের ওয়েবসাইটটি মার্চ মাসের শেষ দিকে হ্যাক করা হয়েছে। ফিলিপিন্সের অজ্ঞাত এক হ্যকার দল ওই ঘটনার দায় স্বীকার করেছে। দলটির দাবি, তারা ৯ মে’র নির্বাচনে যে স্বয়ংক্রিয় ভোটিং মেশিনগুলো ব্যবহৃত হবে সেগুলোসহ ভোট গ্রহণ ব্যবস্থাটির দুর্বলতাগুলো তুলে ধরতে চেয়েছে।

এদিকে সাইবার নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠান ‘ট্রেন্ড মাইক্রো’র মতে সরকারী তথ্য ফাঁসের ক্ষেত্রে এটি ইতিহাসের সবচেয়ে বড় ঘটনা, যেটি সরকার সমাধানের চেষ্টা করছে। প্রতিষ্ঠানটি এক প্রতিবেদনে বলেছে, “ফিলিপিন্সে প্রত্যেক নিবন্ধনকৃত ভোটারই এখন পরিচয় জালিয়াতিসহ বিভিন্ন ঝুঁকির আশঙ্কায় রয়েছে।”

ট্রেন্ড মাইক্রো’র মতে, এটি ২০১৫ সালের যুক্তরাষ্ট্রের ‘ইউএস অফিস অফ পারসোনেল ম্যানেজমেন্টের’ হ্যাকিংয়ের ঘটনার চেয়েও বড়। ওই হ্যাকিংয়ে দুই কোটি মার্কিন নাগরিকের আঙ্গুলের ছাপ এবং ‘সোশাল সিকিউরিটি নাম্বার’ হ্যাক করা হয়েছিল; যদিও এখন পর্যন্ত তথ্যগুলো অনলাইনে পাওয়া যায়নি।

ট্রেন্ড মাইক্রোর ম্যানেজার রায়ান ফ্লোরেস মনে করেন, এমন ঘটনা আরও ঘটবে বিশেষ করে উন্নয়নশীল দেশগুলোতে। তাই এটি প্রতিহত করতে ‘শক্তিশালী নিরাপত্তা ব্যবস্থা’ প্রয়োজন।

ফ্লোরেস আরও বলেছেন, ‘অসৎ উদ্দেশ্য আছে এমন যে কেউ এর মাধ্যমে ভোটের ফল পাল্টে দিতে পারে।’

Leave a Reply