খাদ্যমন্ত্রী কাফি !

খাদ্যমন্ত্রী কাফি !

কাজী মিশু: সারাদেশ থেকে সংসদ সদস্যরা এসেছেন, অধিবেশন চলছে। অন্যন্য দিনের চেয়ে আজকের অধিবেশন অনেক বেশি প্রাণবন্ত। কারণ আজই পাশ হতে যাচ্ছে খাদ্য অধিকার আইন-২০১৫! তাই আজকের সংসদে মূল আকর্ষণ প্রধানমন্ত্রী নন, খাদ্যমন্ত্রী।

আজ অধির আগ্রহে বাংলাদেশ চেয়ে আছে খাদ্যমন্ত্রী দিকে! কারণ এদেশের মানুষ যেন দু’বেলা দু’মুঠো খেয়ে বেচে থাকতে পারে সেই আইন পাশ হতে যাচ্ছে আজ। অবশেষে খাদ্যমন্ত্রী উঠে দাঁড়ালেন। খাদ্য অধিকার আইন পাশের যৌক্তিকতা সুচারু রুপে তুলে ধরলেন।

মানুষের মৌলিক অধিকার খাদ্য। এই অধিকার নিশ্চিত করার জন্য সংসদে তুমুল আলোচনা হল। অবশেষে সবার সম্মতিক্রমে পাশ হল বাংলাদেশ খাদ্য অধিকার আইন-২০১৫। চারিদিকে ধন্য ধন্য রব উঠল। এই মহান আইন পাশ করার জন্য সবাই খাদ্যমন্ত্রীকে সাধুবাদ জানালেন।

এই খাদ্যমন্ত্রী আর কেউ নয়, ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থী আবদুল্লাহ আল কাইয়ুম কাফি এবং আমরা যে সংসদের কথা বলছি তা অন্য কিছু নয়, ২য় যুব ছায়া সংসদ। গত ১৭ অক্টোবর হাঙ্গার ফ্রি ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ, অক্সফাম বাংলাদেশসহ ২৬টি যুবসংগঠনের আয়োজনে এই যুব ছায়া সংসদ অধিবেশন অনুষ্ঠিত হয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট ভবনে। ছায়া সংসদ অধিবেশনে বাংলাদেশের বিভিন্ন যুবসংগঠনের তিন শতাধিক সদস্য ‘যুব সাংসদ’ হিসেবে অংশগ্রহণ করেন।

ছায়া সংসদের খাদ্যমন্ত্রী কাফি ক্যাম্পাসের পরিচিত মুখ। সে ইয়ুথ এগেইনস্ট হাঙ্গার বাংলাদেশ জাতীয় কমিটির সভাপতি ও ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি’র আইন বিভাগের ছাত্র। কিছুদিন আগে জাপানে আয়োজিত ‘গ্লোবাল ইয়ুথ কনফারেন্স’-এ বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করেছেন। তিনি স্কুল জীবন থেকে বাংলাদেশের মানুষের খাদ্য অধিকার নিয়ে কাজ করে চলেছেন। বিশ্বকে পরিবর্তন করার ব্রত নিয়ে সামাজিক ব্যবসা আন্দোলনের সাথেও নিজেকে সম্পৃক্ত করেছেন।

সেই দিন আর বেশি দূরে নেই যে দিন কাফির মত উদ্যমী তরুণদের নেতৃত্বে বাংলাদেশ এগিয়ে যাবে এক তারুণ্যের গতিতে। ……  favicon

Leave a Reply