‘নৈতিক শিক্ষায় শিক্ষিত হও’

‘নৈতিক শিক্ষায় শিক্ষিত হও’

  • ড্যাফোডিল বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি

তরুণদের প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষার পাশাপাশি  নৈতিক শিক্ষায় শিক্ষিত হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন ট্রান্সকম গ্রুপের চেয়ারম্যান ও অসলো বিজনেস ফর পিস অ্যাওয়ার্ড প্রাপ্ত  দেশ বরেণ্য শিল্পপতি লতিফুর রহমান। তিনি আজ সোমবার (২৭ ফ্রেব্রুয়ারি) ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশ ইউনিভার্সির ইনোভেশন অ্যান্ড ইনকিউবেশন সেন্টার আয়োজিত লোকবক্তৃতা সিরিজের ৮ম পর্বে প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তৃতাকালে এ আহ্বান জানান। ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনির্ভার্সিটির ট্রাষ্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান মো. সবুর খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনির্ভার্সিটির ট্রাষ্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান মো. সবুর খান, বিশবিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. ইউসুফ এম ইসলাম ও ইনোভেশন এন্ড ইনকিউবেশন সেন্টারের পরিচালক আবু তাহের খান। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচালক (স্টুডেন্ট এফেয়ার্স) সৈয়দ মিজানুর রহমান।

লতিফুর রহমান তার বক্তৃতায় দীর্ঘ সংগ্রামের পথ পাড়ি দিয়ে আজকের এ সাফল্যের শিখরে উঠে আসার কাহিনী শিক্ষার্থীদের সামনে তুলে ধরেন এবং শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন। তিনি বলেন, শিক্ষার্থী বন্ধুরা, তোমাদের শুধু প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষায় শিক্ষিত হলেই চলবে না, নৈতিক শিক্ষায়ও শিক্ষিত হতে হবে। তা না হলে তোমাদের অর্জিত শিক্ষা এবং সার্টিফিকেট কোনো কাজে আসবে না। এসময় তিনি হলি আর্টিজানে সন্ত্রাসী হামলায় নিহত প্রিয় নাতি ফারাজের নৈতিক শিক্ষাকে স্মরণ করে বলেন, ফারাজ ছিল তোমাদের মতোই তরুণ। সে তার জীবন দিয়ে নৈতিকতার প্রমাণ দিয়ে গেছে।

unnamed (1)সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে পড়ুয়া নাইজেরিয়া বংশোদ্ভূত এক শিক্ষার্থীর প্রশ্নের উত্তরে লতিফুর রহমান বলেন, উদ্যোক্তা হওয়ার জন্য নিজের সদিচ্ছাই যথেষ্ঠ। আইডিয়া তোমাদের চারপাশেই ছড়ানো রয়েছে। শুধু নিজের আগ্রহ আর পছন্দ বুঝে আইডিয়া নির্বাচন করো এবং কঠোর পরিশ্রম করো, সফল হবেই।

এসময় লতিফুর রহমান আরও বলেন, একা একা সংগ্রাম করে কখনো সফল হওয়া যায় না। সফল হতে হলে পারস্পরিক সহযোগিতা লাগে। প্রতিষ্ঠানের কর্মীদের কাছ থেকে সর্বোচ্চ কাজ আদায় করে নিতে হলে প্রতিষ্ঠানের কাজের পরিবেশ কর্মীবান্ধব করতে হয় বলেও মনে করেন এই বিশিষ্ট ব্যবসায়ী উদ্যোক্তা।

অনুষ্টানে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনির্ভার্সিটির ট্রাষ্টি বোর্ডের মো. সবুর খান বলেন, বাংলাদেশের শিল্পক্ষেত্রে যারা বিপ্লব করেছেন তাদের নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে কোনো গবেষণা নেই। এটা দুঃখজনক।  বাংলাদেশের তরুণ শিক্ষার্থীরা বিদেশি উদ্যোক্তাদের জীবন সংগ্রাম পাঠ করে, কিন্তু আমাদের দেশের সফল উদ্যোক্তাদের জীবনও কম সংগ্রামমুখর নয়। সেসব গল্প শুনতেই আমাদের ইন্ড্রাস্ট্রি একাডেমিয়া লেকচার সিরিজ।

মো. সবুর খান আরও বলেন, বাংলাদেশের ব্যবসা জগতে এক উজ্জ্বল নক্ষত্রের নাম লতিফুর রহমান। নৈতিক ব্যবসার ক্ষেত্রে তিনি এক রোল মডেল। তার মুখে তার উদ্যোক্তা হওয়ার গল্প শুনতে পারা নিঃসন্দেহে সৌভাগ্যের ব্যাপার।

অনুষ্ঠানে দেশের শিল্প ও ব্যাবসাখাতের নেতৃবর্গ, অর্থনীতিবিদ, শিক্ষক, গবেষক ও নাগরিক সমাজের বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। উল্লেখ্য, আমন্ত্রিত এই ১২ জন সফল উদ্যোক্তার বক্তৃতাগুলো নিয়ে পরবর্তী সময়ে একটি বই প্রকাশিত হবে, যা বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ের ব্যবসা, অথনীতি ও উদ্যোক্তা উন্নয়ন সংশ্লিষ্ট বিভাগগুলোর শিক্ষার্থীদের জন্য রেফারেন্স বই হিসেবে ব্যবহারের সুযোগ সৃষ্টি করবে। এই ১২ জন উদ্যোক্তার ওপর ডিআইইউ থেকে ১২টি প্রামাণ্যচিত্রও নির্মিত হবে।

ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনির্ভার্সিটি আশা করছে যে, এ লোকবক্তৃতামালা নতুন প্রজন্মের সৎ, শিক্ষিত ও মেধাবী উদ্যোক্তাদেরকে সাহস, নিষ্ঠা ও দক্ষতার সাথে সামনে এগিয়ে যেতে সাহায্য ও অনুপ্রাণিত করবে। উদ্যোক্তা উন্নয়নের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ তার সম্ভাবনার সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ  গতিতে এগুতে পারছে না বলে যে ধারণা চালু রয়েছে, এ লোকবক্তৃতামালা, সে সীমাবদ্ধতা কাটিয়ে ওঠতে অনেকখানি সাহায্য করবে আশা করা যায়।favicon59-4

Leave a Reply