আত্মবিশ্বাসই মানুষকে সামনে এগিয়ে নিয়ে যায়

আত্মবিশ্বাসই মানুষকে সামনে এগিয়ে নিয়ে যায়

  • লিডারশিপ ডেস্ক

বিশ্বের ইতিহাসে সবচেয়ে আলোচিত টেনিস খেলোয়াড়দের অন্যতম রজার ফেদেরার। ‘সুইস জাদুকর’খ্যাত এ টেনিস তারকা সম্পর্কে আমরা কম-বেশি সবাই জানলেও কিছু বিষয় অজানা রয়ে গেছে এখনও। রজার ফেদেরারের ব্যক্তি জীবনের এমন কিছু তথ্য নিয়ে আজকের এ আয়োজন।


লড়াকু এবং আবেগি
সুইজারল্যান্ডে জন্ম নেওয়া ফেদেরার কিশোর বয়সে ফুটবল এবং টেনিস দুটোই খেলতেন। স্থানীয় পর্যায়ে বেশ ক’টি টেনিস প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের মাধ্যমে তার আত্মবিশ্বাস বেড়ে যায়। এভাবেই টেনিসের সঙ্গে তার ঘর বাঁধা। ওই বয়সটা ছিল ভীষণ আবেগি। প্রতিটি ম্যাচ খেলার পর ফেদেরার কাঁদতেন। কারণ তিনি তার শেষ সীমা জানতেন না তখন। এভাবে ছোট্ট গণ্ডির মধ্যে খেলতে খেলতে একসময় নিজেকে তিনি আবিষ্কার করলেন জাতীয় পর্যায়ে, টেনিস খেলার কোর্টে।

আত্মবিশ্বাসী
ফেদেরার যে প্রচণ্ড আত্মবিশ্বাসী, তা তার প্রতিটি অর্জনই মনে করিয়ে দেয়। খ্যাতিমান এ তারকা মনে করেন, সব ধরনের পেশায় উত্থান-পতন থাকবেই। অনুপ্রেরণা সব সময় মানুষকে এগিয়ে নিয়ে যায়। পরাজিতকে কেউ মনে রাখে না। বিজয়ীকে ইতিহাস মনে রাখে। কোনো ম্যাচ জেতার পর ফেদেরারের যে আত্মবিশ্বাস থাকে, হেরে গেলেও একই আত্মবিশ্বাস ধরে রাখার চেষ্টা করেন। ফেদেরার তাই অকপটে স্বীকার করেন, আত্মবিশ্বাসই মানুষকে সামনে এগিয়ে নিয়ে যায়।

মানুষের পাশে
সুইস, জার্মান, ফরাসি ও ইংরেজি ভাষায় স্বাচ্ছন্দ্যে কথা বলতে পারেন ফেদেরার। পেশা জীবনে যতটা আলো ছড়িয়েছেন তেমনি মানবতার সেবায় নিজেকে নিয়োজিত করে প্রমাণ করেছেন কতটা মানবিক তিনি। ২০০৩ সাল থেকে তিনি রজার ফেদেরার ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে সুবিধাবঞ্চিত মানুষের জন্য কাজ শুরু করেন। ২০০৬ সাল থেকে ইউনিসেফের শুভেচ্ছাদূত হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন। এ ছাড়া আফ্রিকার শিশুদের শিক্ষা নিয়ে কাজ করছেন।

তীক্ষ্ণ বুদ্ধির অধিকারী
ফেদেরার ব্যক্তি জীবনে খুবই ঠাণ্ডা মাথার মানুষ। তার মতে, মানুষের জীবনে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ দুটি নিয়ম প্রতিনিয়ত খেয়াল রাখা উচিত। প্রথমত সব পরিস্থিতিতে মাথা ঠাণ্ডা রাখা। দ্বিতীয়ত, নিজের পথ নিজেই ঠিক করে সামনে এগিয়ে চলা এবং তার জন্য যথাসাধ্য কাজ করা।

পরিবার
সাবেক ডবি্লউটিএ খেলোয়াড় মিরোস্লাভা মিরকা হলেন ফেদেরারের যোগ্য ঘরণী। মিরোস্লাভার সঙ্গে প্রায় ১০ বছর প্রণয়ের পর বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন ফেদেরার। বর্তমানে মিলা রোজ এবং শারলিন রিভা নামে দুটি যমজ কন্যা সন্তানের জনক-জননী এ তারকা দম্পতি এবং দিন শেষে এই সন্তানদের মাঝে থাকতেই পছন্দ করেন রজার।

সূত্র: সমকালfavicon59-4

Leave a Reply