নকল হাসি চেনার উপায়

নকল হাসি চেনার উপায়

ফিচার ডেস্ক: মানুষের হাসির মাঝে লুকিয়ে থাকে তার আসল রূপ। মিষ্টি হাসি দেখেই আপনি গলে যান। অথচ এই হাসি আপনার জন্য মাঝে মাঝে ক্ষতির কারণ হয়ে দাড়ায়, আপনি বোকা বনে যান। কিছু বুঝে ওঠার আগেই মিষ্টি হাসির লোক উধাও। সত্য কথা হল কোনটা নকল হাসি তা আপনি চিনতে পারেন না্। প্রশ্ন হল নকল হাসি চিনতে পারা কী সম্ভব? হ্যাঁ সম্ভব। আসুন তাহলে জেনে নিই নকল হাসি চিনতে পারার চমৎকার তিন কৌশল।

চোখ বন্ধ হয়ে আসা: হাসলে অনেকের চোখ বন্ধ হয়ে আসে। তবে পুরো বন্ধ না হলেও সকলের চোখ কিন্তু ছোট হয়ে আসবেই বা কিছুটা বুজে আসবেই। যদি দেখেন আপনার সামনে বসা মানুষটা হাসছেন অথচ ড্যাবড্যাব করে দু’চোখ খুলে তাকিয়ে আছেন। তাহলে বুঝতে তার হাসি কিন্তু নকল।

চোখে ভাঁজ হয়ে যায়: হাসি দেখে কারো খুশি বুঝতে পারা যায় না। আপনি যদি ভেবে থাকেন মানুষের দাঁত বের করে হো হো হাসার মানেই সে খুশি তাহলে আপনি চরম ভূল ধারণা নিয়ে আ্ছেন। কারণ মানুস খুশি কিনা তা বোঝা যায় তার চোখে দেখে। কেউ যদি আপনার কথা শুনে জোরে জোরে হাসে অথচ চোখে তার কোনও প্রভাব না পড়ে তাহলেই বুঝবেন লোকটি মোটেও খুশি হন নি। আর যদি হাসতে হাসতে চোখের কোলে ভাঁজ পড়ে, চোখ উজ্জ্বল হয়ে উঠে বা চোখে পানি আসে তখন বুঝবেন লোকটি সত্যিই খুশি হয়েছেন।

নীচের পাটির দাঁত দেখা যায়: আমরা যখন হাসি তখন সাধারণত আমাদের দাঁতের উপরের পাটি দেখা যায়। যদি কখনো এর ব্যতিক্রম হয়, যেমন- কেউ হাসলে যদি তার নীচের পাটির দাঁত দেখা যায় তাহলে বুঝবেন তার হাসি নকল। অনেক সময় মুখের পেশির গঠনের কারণে হাসলে দাঁতের নীচের পাটি বেরিয়ে পড়ে। তাদের ক্ষেত্রে আপনি উপরের দুটি কৌশল অবলম্বন করতে পারেন।

faviconমডেল: ইরা
ফটোগ্রাফি: এস এম রাসেল

Leave a Reply