ভাষা শহীদদের প্রতি বেরোবির শ্রদ্ধা

ভাষা শহীদদের প্রতি বেরোবির শ্রদ্ধা

সজীব হোসাইন, রংপুর : একুশ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশিদের গৌরবের ও অহংকার করার মত একটি দিন। ১৯৫২ সালের এই দিনে বাংলাকে রাষ্ট্রভাষা করার দাবিতে আন্দোলনরত ছাত্রদের ওপর গুলিবর্ষণ করে বর্বর পাকিস্তানি পুলিশরা। মুখের ভাষার জন্য অকাতরে প্রাণ দেয় বীর ভাষা সৈনিকেরা। তাই একুশে ফেব্রুয়ারি এখন আর বাংলাভাষাভাষী মানুষের কাছে শোকার্ত দিন নয়।

একুশে ফেব্রুয়ারি এখন গোটাবিশ্বের মাতৃভাষা দিবস। রক্তের আলপনা এঁকে এই ভাষাকে প্রতিষ্ঠিত করেছে আমাদের বাঙালি সন্তানরা। আর এই ভাষা শহীদের শ্রদ্ধা জানাতে দিনের প্রথম প্রহরে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের(বেরোবি) স্বাধীনতা স্বারকের পাদদেশে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. একে এম নূর-উন-নবী। এছাড়া সকাল ১০টা থেকে পর্যায়ক্রমে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ সর্বস্তরের জনসাধারণ পুষ্পার্ঘ্য অর্পন করেন।

পুষ্পার্ঘ্য অর্পন শেষে ভাষা শহীদের স্মরণ করে বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাফেটরিয়ার আয়োজিত আলোচনা সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. একে এম নূর-উন-নবী বলেন, ‘ভাষা আন্দোলনের মধ্য দিয়েই সুপ্তভাবে পাকিস্থানি পরাধীনতা থেকে মুক্তির বীজ বপন করা হয়েছিল। একুশে ফেব্রুয়ারির শুধু ভাষার জন্য আন্দোলন হয়নি হয়েছিল বাঙ্গালী জাতির অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখার আন্দোলন।’

আলোচনা সভায় একুশ ফেব্রুয়ারি-২০১৬ উদযাপন কমিটির আহবায়ক ড. নিতাই কুমার ঘোষ-এর সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন বিজনেস স্টাডিজ অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. মতিউর রহমান, শিক্ষক সমিতির সভাপতি ড. আর এম হাফিজুর রহমান এবং উপাচার্যের সহধর্মিনী মিসেস গুল নাহার নবী। এছাড়া অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার বীর মুক্তিযোদ্ধা মুহাম্মদ ইব্রাহীম কবীর, প্রক্টর (চলতি দায়িত্ব) মো. শাহীনুর রহমান, শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক তাবিউর রহমান প্রধান, হিসাব বিজ্ঞান ও তথ্য পদ্ধতি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক উমর ফারুক প্রমুখ। favicon594

Leave a Reply