ইয়ুথ লিডারশিপ বুটক্যাম্পের চতুর্থ পর্বের সমাবর্তন

ইয়ুথ লিডারশিপ বুটক্যাম্পের চতুর্থ পর্বের সমাবর্তন

  • নিউজ ডেস্ক

মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে জাতীয় পর্যায়ে নেতৃত্ব উন্নয়নবিষয়ক আবাসিক কর্মশালার সমাবর্তন অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল রোববার সন্ধ্যায় গ্র্যান্ড সুলতান টি রিসোর্ট অ্যান্ড গলফে ইয়ুথ লিডারশিপ বুটক্যাম্পের চতুর্থ পর্বের এই সমাবর্তনের আয়োজন করে বাংলাদেশ ইয়ুথ লিডারশিপ সেন্টার (বিওয়াইএলসি)।

২০১৩ ও ২০১৫ সালের সাফল্যের ধারাবাহিকতায় ঢাকাস্থ মার্কিন দূতাবাসের সহযোগিতায় ২ থেকে ৫ ফেব্রুয়ারি এবং ৯ থেকে ১২ ফেব্রুয়ারি পরপর দুটি বুটক্যাম্পের আয়োজন করে বিওয়াইএলসি। চার দিনের এই দুটি কর্মশালায় নেতৃত্ব চর্চা এবং ক্যারিয়ার উন্নয়ন বিষয়ে জ্ঞান লাভ এবং মতামত বিনিময় করেছেন বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া ২০০ শিক্ষার্থী। দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের ১ হাজার ৬২৮ জন আবেদনকারীর মধ্য থেকে মেধা ও দক্ষতার ভিত্তিতে বাছাইকৃত ব্যক্তিরাই দুটি কর্মশালায় অংশগ্রহণের সুযোগ পেয়েছেন।

সমাবর্তন অনুষ্ঠানে মূল বক্তব্য দেন বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত মার্শা বার্নিকাট। সমাবর্তনসহ বুটক্যাম্পের অন্য দিনগুলোতে বক্তব্য দেন বিওয়াইএলসির চেয়ারপারসন আখতার মতিন চৌধুরী, প্রেসিডেন্ট ইজাজ আহমেদ, বোর্ড সদস্য মনজুর হাসান ওবিই, মাইক্রোসফট বাংলাদেশের নির্বাহী পরিচালক সোনিয়া বশির, আজকের ডিল-এর সিইও ফাহিম মাশরুর, অ্যাডকমের নির্বাহী পরিচালক নাজিম ফারহান চৌধুরী ও মৌলভীবাজারের জেলা প্রশাসক মো. তোফায়েল ইসলাম।

মার্কিন রাষ্ট্রদূত তাঁর বক্তব্যে বলেন, ‘প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই মার্কিন দূতাবাস বিওয়াইএলসির গর্বিত অংশীদার হিসেবে এর পাশে আছে। উন্নয়নের লক্ষ্যে নেতৃত্বের মূল্যবোধ বিকাশের জন্য প্রতিষ্ঠানটির নিরলস কাজ আমাদের অনুপ্রাণিত করে।’

বুটক্যাম্পে অংশগ্রহণকারী এশিয়ান ইউনিভার্সিটি ফর উইমেনের পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী আহমেদ সারাফ তুবা তাঁর অভিজ্ঞতা তুলে ধরে বলেন, ‘অন্তর্মুখী স্বভাবের মানুষও নেতৃত্ব চর্চা করতে পারে। কারণ নেতৃত্ব শুধুই প্রভাব বিস্তার কিংবা দৃষ্টি আকর্ষণ নয়।’favicon59-4

Leave a Reply