‘জন্ম নিয়ন্ত্রণে প্রসব পরবর্তী পরিকল্পনা গুরুত্বপূর্ণ

‘জন্ম নিয়ন্ত্রণে প্রসব পরবর্তী পরিকল্পনা গুরুত্বপূর্ণ

নিউজ ডেস্ক: গতকাল বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম জানান, মা-শিশু-কৈশোরকালীন স্বাস্থ্যসেবা ও প্রচার সপ্তাহ পালন করতে যাচ্ছে সরকার। যার শ্লোগান – ‘প্রসব পরবর্তী সময়ে পরিবার পরিকল্পনা পদ্ধতি গ্রহণ করুন, অপরিকল্পিত গর্ভধারণ রোধ করুন’।

মূলত প্রসবের পর প্রথম ১২ মাসের মধ্যে অনিচ্ছাকৃত এবং কম দিনের বিরতিতে পুনরায় গর্ভধারণ হতে বিরত থাকাই হলো প্রসব পরবর্তী পরিবার পরিকল্পনা। সক্ষম দম্পতিদের ক্ষেত্রে দুই সন্তানের মাঝে ন্যূনতম তিন বছর বিরতি এবং দুটি জীবিত সন্তানের ক্ষেত্রে দ্বিতীয়টির বয়স এক বছর হলেই স্থায়ী পদ্ধতি গ্রহণে উদ্বুদ্ধ করাই এবারের সেবা ও প্রচার সপ্তাহের মূল লক্ষ্য।

নভেম্বরের ৭-১২ তারিখ পর্যন্ত দেশব্যাপী অনুষ্ঠিত হবে পরিবার পরিকল্পনা, মা-শিশু-কৈশোরকালীন স্বাস্থ্যসেবা ও প্রচার সপ্তাহ। এ উপলক্ষে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেন, ‘গত ১০ বছরে (২০০৪-১৪) জন্মনিয়ন্ত্রণ পদ্ধতি ব্যবহারকারীর হার ৫৮ দশমিক ১ শতাংশ থেকে বৃদ্ধি পেয়ে ৬২ দশমিক ৪ শতাংশে উন্নীত হয়েছে। তবে স্থায়ী ও দীর্ঘমেয়াদি পদ্ধতিতে তেমন কোনো অগ্রগতি পরিলক্ষিত হয়নি।’  favicon

Leave a Reply