মালয়েশিয়ার ‘সিইও টক’ অনুষ্ঠানে প্রথম বাংলাদেশি

মালয়েশিয়ার ‘সিইও টক’ অনুষ্ঠানে প্রথম বাংলাদেশি

  • সংবাদ ডেস্ক

ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান ড. মো. সবুর খান প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে মালয়েশিয়ার সবচেয়ে পুরাতন বিশ্ববিদ্যালয় ‘ইউনিভার্সিটি কাবাংসান মালয়েশিয়ায় (ইউকেএম) এক অনুষ্ঠানে বক্তব্য প্রদান করেছেন। আজ সোমবার (৫ নভেম্বর) ইউকেএম চ্যান্সেলারি ভবনের সিনেট কক্ষে ‘সিইও টক সিরিজ’ শীর্ষক উক্ত একক বক্তৃতাটি অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে বিপুল সংখ্যক, শিক্ষক ও ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তাদের সামনে ড. মো. সবুর খান ‘আইআর ফোর পয়েন্ট জিরো ফর দ্য ইয়ং ওয়ার্কফোর্স অ্যান্ড এন্ট্রাপ্রেনার্স’ শিরোনামে বক্তব্য প্রদান করেন। অনুষ্ঠানটি যৌথভাবে আয়োজন করে ইনস্টিটিউট ফর এনভায়রনমেন্ট অ্যান্ড ডেভলপমেন্ট এবং গ্রাজুয়েট সেন্টার অফ ইউকেএম।

‘সিইও টক সিরিজ’ ইউনিভার্সিটি কাবাংসান মালয়েশিয়ার একটি নিয়মিত আয়োজন। এই অনুষ্ঠানে মূলত বন্ধুত্ব, নেটওয়ার্ক, জ্ঞান, দক্ষতা ইত্যাদি বিষয়ে বিশেষজ্ঞ ব্যক্তিবর্গ শিক্ষার্থীদের সামনে কথা বলে থাকেন।

১৯৭০ সালে প্রতিষ্ঠিত ইউনিভার্সিটি কাবাংসান মালয়েশিয়া (ইউকেএম) বিশ্বের অন্যতম সেরা বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর একটি। বিশ্ববিদ্যালয়টিতে ১৭৫০০জন স্নাতক ও ৫১০৫জন স্নাতকোত্তর পর্যায়ের শিক্ষার্থী রয়েছেন। এখানে বিশ্বের ৩৫টি দেশের ১৩৬৮জন বিদেশি শিক্ষার্থী পড়াশোনা করছেন। আর সারা বিশ্বে ছড়িয়ে রয়েছেন ইউকেএম-এর ১৭২০০০জন প্রাক্তন শিক্ষার্থী। ২০০৭ সালে মালয়েশিয়া সরকার ইউকেএম-কে গবেষণা বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে পুরস্কৃত করেছে। এই বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির শিক্ষক ও শিক্ষার্থী বিনিময় প্রকল্প রয়েছে।

Leave a Reply