এএসইএফ রেক্টর্স কনফারেন্সে ড্যাফোডিল বিশ্ববিদ্যালয়

এএসইএফ রেক্টর্স কনফারেন্সে ড্যাফোডিল বিশ্ববিদ্যালয়

  • সংবাদ ডেস্ক

ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির পরিচালক (প্রশাসন) ও ট্রাস্টি বোর্ডের সদস্য মোহাম্মদ ইমরান হোসেন এবং ইন্টারন্যাশনাল অ্যাফেয়ার্সের সহকারি পরিচালক সৈয়দ রায়হান উল ইসলাম ৭ম এএসইএফ রেক্টর্স কনফারেন্স অ্যান্ড স্টুডেন্টস ফোরাম (এআরসি৭)-এ অংশগ্রহণ করেছেন। গত ১১-১৫ মে রোমানিয়ার বুখারেস্টে এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। রোমানিয়ার শিক্ষামন্ত্রণালয়ের সার্বিক সহযোগিতায় এশিয়া-ইউরোপ ফাউন্ডেশন (এএসইএফ) এবং ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি অব পলিটিক্যাল স্টাডিজ অ্যান্ড পাবলিক অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (এসএনএসপিএ) এ সম্মেলনের আয়োজন করেছিল।

সম্মেলনটিতে বিভিন্ন দেশের ১৫০টি বিশ্ববিদ্যালয়ের নেতৃবৃন্দ, বিশেষজ্ঞ ও নীতিনির্ধারকরা অংশ নিয়েছিলেন। এছাড়া এএসইএমভুক্ত ৫১টি দেশের ৫১জন ছাত্র প্রতিনিধি এ সম্মেলনে অংশগ্রহণ করেন।

পরিচালক প্রশাসন মোহাম্মদ ইমরান হোসেন এই সম্মেলনে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির প্রতিনিধিত্ব করেন এবং ‘এআরসি-৭ রেক্টর্স রিকমেন্ডেশনস’ শীর্ষক আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন। অপরদিকে সৈয়দ রায়হান উল ইসলাম ওয়ার্কিং গ্রুপের প্রতিনিধি হিসেবে স্টুডেন্ট ফোরামে ‘টেকিং একশন অ্যাট হোম : এসডিজি’স অ্যাজ এ কোর পিলার্স অব ইউনিভার্সিটি গভর্নেন্স’ শীর্ষক আলোচনায় অংশ নেন।

এশিয়া ও ইউরোপের উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো তাদের নীতিমালা উন্নয়ন এবং ২০৩০ সালের  এজেন্ডা বাস্তবায়নে কীভাবে কাজ করছে তা জানতে প্রতিষ্ঠানগুলোর নেতৃবৃন্দকে ৭ম এএসইএফ রেক্টর্স কনফারেন্স অ্যান্ড স্টুডেন্টস ফোরামে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল। এএসইএফ রেক্টর্স কনফারেন্স অ্যান্ড স্টুডেন্টস ফোরাম (এআরসি) ২০০৮ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় এবং প্রতিষ্ঠার পর থেকে সংগঠনটি এশিয়া ও ইউরোপের উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর শিক্ষাপদ্ধতি, নীতিনির্ধারণ ইত্যাদি বিষয় নিয়ে কাজ করছে। প্রতিষ্ঠানটি এশিয়া ও ইউরোপের উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর নেতৃবৃন্দ ও নীতিনির্ধারকদের একটি প্ল্যাটফর্ম।

Leave a Reply