সিরিজ জিতলো দক্ষিণ আফ্রিকা

সিরিজ জিতলো দক্ষিণ আফ্রিকা

স্পোর্টস ডেস্ক: রোববার মু্ম্বাইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে ৪ উইকেটে ৪৩৮ রান করে দক্ষিণ আফ্রিকা। ভারতের মাটিতে এবং ভারতের বিপক্ষে ওয়ানডে ক্রিকেটে এটাই কোনো দলের সর্বোচ্চ রানের ইনিংস। আর ওয়ানডে ক্রিকেটের ইতিহাসে এটা তৃতীয় সর্বোচ্চ দলীয় ইনিংস। জবাবে ৩৫ ওভার ৫ বলে ২২৪ রানে অলআউট হয়ে যায় ভারত।

ব্যাট করতে শুরুটা ভালো হয়নি ভারতের। ৪৪ রানেই রোহিত শর্মা ও বিরাট কোহলিকে হারায় স্বাগতিকরা। শিখর ধাওয়ানের সঙ্গে ১১২ রানের জুটিতে কিছুটা লড়াই করেন অজিঙ্কা রাহানে। কাগিসো রাবাদার বলে আমলাকে ক্যাচ দিয়ে ধাওয়ান বিদায় নিলে ভাঙে বিপজ্জনক হয়ে উঠা তৃতীয় উইকেট জুটি। রাবাদার পরের ওভারে সুরেশ রায়না ফিরে গেলে ভারতের ওপর চাপ আরও বাড়ে। বোলিংয়ে ফিরে ভারতের জন্য বিপদজ্জনক হয়ে ওঠেন ডেল স্টেইন। ৮৭ রান করা রাহানেকে ফেরান তিনি।

ভারতের আশা তখন ধোনি। ভালো করতে পারেননি তিনিও। ৫২ রানে শেষ ৭ উইকেট হারানো ভারত শেষ পর্যন্ত হারে বিশাল ব্যবধানে।
৪১ রানে ৪ উইকেট নিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকার সেরা বোলার রাবাদা। স্টেইন ৩ উইকেট নেন ৩৮ রানে। এর আগে ৩৩ রানে হাশিম আমলার উইকেট হারায় দক্ষিণ আফ্রিকা। এই রান করার পথেই বিরাট কোহলির (১৩৬) দ্রুততম ছয় হাজার রান করার রেকর্ড ভাঙেন আমলা (১২৩)।

দ্বিতীয় উইকেটে দু প্লেসির সঙ্গে ১৫৪ রানের জুটিতে দলকে বড় সংগ্রহের ভিত এনে দেন ডি কক। সুরেশ রায়নার বলে কোহলির তালুবন্দি হওয়ার আগে ভারতের বিপক্ষে পঞ্চম শতকে পৌঁছান এই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান। ৮৭ বলে খেলা ডি ককের ১০৯ রানের ইনিংসটি ১৭টি চার ও একটি ছক্কায় সাজানো।
ডি কক ফিরে গেলেও অধিনায়ক ডি ভিলিয়ার্সকে নিয়ে দলকে এগিয়ে নিতে থাকেন দু প্লেসি। আহত হয়ে অবসর নেওয়ার আগে তিনি খেলেন ১৩৩ রানের চমৎকার এক ইনিংস। তার ১১৫ বলের ইনিংসটি গড়া ৯টি চার ও ৬টি ছক্কায়।

ব্যাট করছেন ডিভিলিয়ার্স। ছবি: রয়টার্স
ব্যাট করছেন ডিভিলিয়ার্স। ছবি: রয়টার্স

পায়ের পেশিতে টান লাগার পর মূলত বাউন্ডারি আর ওভার বাউন্ডারিতেই রান নেন দু প্লেসি। এর মধ্যে অক্ষর প্যাটেলের করা ইনিংসের ৪৩তম ওভারে চারটি ছয় হাঁকান তিনি। প্রতিবার ছয় হাঁকানোর সময় ব্যথায় ককিয়ে ওঠেন তিনি। অবসর নেওয়ার আগে ডি ভিলিয়ার্সের সঙ্গে ১৬৪ রান তোলেন দু প্লেসি। দক্ষিণ আফ্রিকার রান ছিল তখন ২ উইকেটে ৩৫১। দু প্লেসি অবসর নেওয়ার পর তৃতীয় উইকেট জুটিটা এগিয়ে নেন ডেভিড মিলার।
বোলারদের ওপর তাণ্ডব চালিয়ে ওয়ানডে ক্যারিয়ারের ২৩তম শতক করার পর খুব বেশি এগোতে পারেননি ডি ভিলিয়ার্স। ৬১ বলে তার ১১৯ রানের বিস্ফোরক ইনিংসটি ৩টি চার ও ১১টি ছক্কা সমৃদ্ধ।
ডি ভিলিয়ার্স তিন অঙ্কে পৌঁছানোয় নিজেদেরই এক অর্জনকে স্পর্শ করে দক্ষিণ আফ্রিকা। একই ওয়ানডেতে কোনো দলের তিন জনের শতক করার প্রথম ও একমাত্র কীর্তিটা তাদেরই ছিল। গত জানুয়ারিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওই কৃতিত্ব গড়েছিল তিন প্রোটিয়া ব্যাটসম্যান।
তারপর ‘কিলার’ মিলার আর ফারহান বেহারদিন অবশ্য রানের গতি সেভাবে ধরে রাখতে পারেননি। তারপরও ভারতের বোলারদের চোখের জল আর নাকের জল এক করে শেষ ১০ ওভারে ১৪৪ রান তোলে দক্ষিণ আফ্রিকা।

১০ ওভারে ১০৬ রান দিয়ে ডি ভিলিয়ার্সের উইকেট নেওয়া ভুবনেশ্বর কুমার ঢুকেছেন রেকর্ড বইয়ে। তবে সেটা মোটেও আনন্দের নয়, ওয়ানডেতে এক ইনিংসে সবচেয়ে বেশি রান দেওয়া ভারতীয় বোলার এখন তিনিই। favicon

Leave a Reply