বাতি জ্বালাবে ব্যাকটেরিয়া

বাতি জ্বালাবে ব্যাকটেরিয়া

  • বিজ্ঞান প্রযুক্তি

বাতি জ্বালাতে বৈদ্যুতিক শক্তির বিকল্প নেই। বৈদ্যুতিক শক্তি উৎপাদনে তেল, কয়লা, সৌরকোষ ইত্যাদি ব্যবহার করা হয়। তবে এবার ব্যাকটেরিয়া ব্যবহার করে বৈদ্যুতিক বাতি জ্বালানোর দারুণ এক উপায় বের করেছেন যুক্তরাজ্যের নিউক্যাসল বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা। ইলেকট্রিক ইঞ্জিনিয়ারিং ও সিনথেটিক জীববিজ্ঞান ব্যবহার করে ই-কলি ব্যাকটেরিয়াকে রূপান্তর ঘটিয়ে তারা জৈব বৈদ্যুতিক সার্কিট তৈরি করেছেন, যা বৈদ্যুতিক বাল্বের মতো আলো দিতে সক্ষম।

গবেষকরা বলছেন, ই-কলি ব্যাকটেরিয়াকে জিনগতভাবে রূপান্তর ঘটিয়ে এই সার্কিট তৈরি করা হয়েছে। এ বাতি যখন চালু হয় তখন ব্যাকটেরিয়াগুলো তাপ বা কোনো অণুজৈবিক ফুয়েল কোষ থেকে বৈদ্যুতিক প্রবাহ গ্রহণ করে। এ ধরনের ফুয়েল কোষ তৈরি করা হয় অণুজীব থেকে। যেগুলো বিদ্যুৎ উৎপাদন যেমন করতে পারে তেমনি ব্যাটারির মতো কাজ করে। বিজ্ঞানীরা আরও জানান, জোনাকিপোকাসহ বিভিন্ন পতঙ্গের মধ্যে প্রাকৃতিকভাবেই আলো তৈরির জন্য এক ধরনের প্রোটিন সৃষ্টিকারী জিন রয়েছে। জিনগত পরিবর্তন ঘটানোর ফলে নতুন ই-কলি ব্যাকটেরিয়াগুলোও বিশেষ পরিস্থিতিতে নিজেদের মধ্যে এ ধরনের প্রোটিন উৎপাদন করে আলো বা প্রভা তৈরি করতে পারবে। আর ব্যাকটেরিয়ার এ প্রোটিন ব্যবহার করে বাতিটিকে জ্বালানোর জন্য একটি সার্কিট ও প্রয়োজনীয় বিদ্যুৎ উৎস তৈরি করা হয়েছে। এতে খুব সহজেই বাতিটিকে নিয়ন্ত্রণ করা যায়।

নিউক্যাসল বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ বলছে, এই গবেষণার সবরকম তথ্য সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে। যেন যে কেউ চাইলে এর আরও অগ্রগতি করতে পারেন। এ আবিষ্কার যুক্তরাষ্ট্রের বোস্টনে জৈব কোষকে জিনগতভাবে পরিবর্তন ঘটিয়ে যন্ত্রে রূপান্তরের আন্তর্জাতিক এক প্রতিযোগিতায় উপস্থাপন করা হবে।favicon59-4

Leave a Reply