ড্যাফোডিলে শেষ হলো আন্তর্জাতিক শিক্ষার্থী সম্মেলন

ড্যাফোডিলে শেষ হলো আন্তর্জাতিক শিক্ষার্থী সম্মেলন

  • ক্যাম্পাস ডেস্ক

জমকালো সাংস্কৃতিক পরিবেশনা ও সনদ প্রদান অনুষ্ঠানের মাধ্যমে শেষ হয়েছে ২১তম ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন অন স্টুডেন্টস কোয়ালিটি কন্ট্রোল সার্কেল-২০১৮ (আইসিএসকিউসিসি)। আজ শনিবার (৫ মে) ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির স্থায়ী ক্যাম্পাস আশুলিয়ায় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল (এমপি) প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে সমাপনী ঘোষণা করেন চার দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত এ আন্তর্জাতিক শিক্ষার্থী সম্মেলনের। সমাপনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির উপাচার্য প্রফেসর ড. ইউসুফ এম ইসলাম এবং সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রাস্টি বোর্ডের  চেয়ারম্যান ড. মো. সবুর খান। এছাড়া অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ওয়ার্ল্ড কাউন্সিল ফর টোটাল কোয়ালিটি অ্যান্ড এক্সেলেন্স ইন এডুকেশনের মহাপরিচালক ডেভিড কলিংউড হুচিন, ওয়ার্ল্ড কাউন্সিল ফর টোটাল কোয়ালিটি অ্যান্ড এক্সেলেন্স ইন এডুকেশনের চেয়ারম্যান ড. জগদীশ গান্ধী,  নির্বাহী পরিচালক ড. বিনিতা কামরান, বাংলাদেশ সোসাইটি ফর টোটাল কোয়ালিটি ম্যানেজমেন্টের চেয়ারম্যান এ এম এম খায়রুল বাশার,   আইসিএসকিউসিসি-২০১৮ এর আহবায়ক প্রফেসর ড. এম আর কবির ও সেন্টার ফর ম্যানেজমেন্ট ডেভেলপমেন্টের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সৈয়দ মাসুদ হাসান।

‘বৈশ্বিক শান্তি ও টেকসই উন্নয়নের জন্য মানসম্মত শিক্ষা’ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে ৩ মে এ শিক্ষার্থী সম্মেলন শুরু হয়েছিল। বাংলাদেশ সোসাইটি ফর টোটাল কোয়ালিটি ম্যানেজমেন্ট (বিএসটিকিউএম)-এর উদ্যোগে এবং ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির সহযোগিতায় অনুষ্ঠিত এ কনভেনশনে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ভারত, শ্রীলংকা, নেপাল, দক্ষিণআফ্রিকা ও মোরিশাসের ৫০০প্রতিনিধি ও শিক্ষার্থীসহ বাংলাদেশের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মোট ১ হাজার শিক্ষার্থী ও প্রতিনিধি অংশগ্রহণ করে। কনভেনশনে প্রায় ৬০টি স্টুডেন্টস কোয়ালিটি কন্ট্রোল সার্কেলের কেস স্টাডি ও শিক্ষা ক্ষেত্রে গুণগত মানবিষয়ক ১৩টি প্রবন্ধ উপস্থাপন করা হয়। এছাড়াও ৪৩টি দল পোস্টার ও শ্লোগান, ৩৯টি দল কোলাজ, ২৯টি দল স্কিট, ৩৩টি দল বিতর্ক, ২৮টি দল কোয়ালিটি ক্ইুজ এবং ১৬টি দল কম্পিউটার প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেন, টেকসই উন্নয়নে গুণগত ও মানসম্মত শিক্ষার কোনো বিকল্প নেই। এর পাশাপাশি বিশ্বজুড়ে সব মানুষের নিরপাত্তা নিশ্চিত করাও জরুরি। তা না হলে বিশ্ব শান্তি সুদূর পরাহত থেকে যাবে। এইসব শিক্ষার্থীরা আমাদেরকে আশাবাদী করে তোলে। এদের হাত ধরেই আগামীর পৃথিবী সুন্দর ও নিরাপদ হয়ে উঠবে। এসময় মন্ত্রী গুণগত শিক্ষা ও বিশ্ব শান্তির লক্ষ্যে কাজ করার জন্য বিএসটিকিউএম এবং ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিকে বিশেষভাবে ধন্যবাদ জানান।

অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথির বক্তব্যে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান ড. মো. সবুর খান বলেন, সমাজের বাতিঘর হচ্ছে শিক্ষা। সুতরাং বাতিঘর যদি মানসম্মত না হয় তাহলে সমাজ সঠিকভাবে আলোকিত হয় না। আর সমাজ আলোকিত না হলে দেশ রাষ্ট্র কিংবা পৃথিবী—কোনো কিছুই আলোকিত হবে না। তাই আমাদেরকে মানসম্মত শিক্ষার ওপর গুরুত্ব দিতে হবে বলে মন্তব্য করেন ড. মো. সবুর খান। এ সময় তিনি ২১তম আইকিউএসসিসি সম্মেলনের জন্য বাংলাদেশেকে এবং ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিকে বেছে নেওয়ার জন্য আয়োজক কমিটিকে বিশেষভাবে ধন্যবাদ জানান।

আয়োজক কমিটির কর্মকর্তারা জানান, কনভেনশনের মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে শিক্ষার্থীদের মাঝে টোটাল কোয়ালিটি ম্যানেজমেন্ট সম্পর্কে সচেতনতা বাড়ানো ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে গুণগত মানোন্নয়ন ও আধুনিক তথ্যপ্রযুক্তির সর্বশেষ উন্নয়ন সম্পর্কে অবহিত করার পাশাপাশি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সমূহে টোটাল কোয়ালিটি ম্যানেজমেন্ট বাস্তবায়নের বিভিন্ন বিষয় বিনিময় করা।

Leave a Reply