মার্চেন্ডাইজিং : সময়ের পেশা

মার্চেন্ডাইজিং : সময়ের পেশা

  • ক্যারিয়ার ডেস্ক

তৈরি পোশাক সেক্টরে ক্যারিয়ার গড়ার ক্ষেত্রে সবচেয়ে আকর্ষণীয় ক্ষেত্রটির নাম হলো মার্চেন্ডাইজিং। মান-মর্যাদা, দায়িত্বশীলতা ও ভাল ক্যারিয়ার উন্নয়ন-এর জন্য এই পেশাকে তৈরি পোশাক সেক্টরের প্রাণ হিসেবে বিবেচনা করা হয়। একজন মার্চেন্ডাইজার সাধারণত গার্মেন্টস ফ্যাক্টরির/ বায়িং হাউজের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কাজগুলো সম্পাদন করে থাকে। তাকে উক্ত প্রতিষ্ঠানের প্রায় সকল ডিপার্টমেন্টের সাথে সমন্বয় রেখে কাজ করতে হয়। সাধারণত পণ্য উন্নয়ন থেকে শুরু করে স্যামপ্লিং, কস্টিং, প্ল্যানিং, যোগাযোগ, সমন্বয় ইত্যাদি কাজগুলো কাজগুলো ধাপে ধাপে করতে হয়। এক কথায় বলতে গেলে, একটি অর্ডারকে বাস্তবায়নে যা যা করণীয় তা একজন মার্চেন্ডাইজারই সম্পাদন করে থাকে।

ক্যারিয়ারের প্রাথমিক অবস্থায় একজন মার্চেন্ডাইজার গার্মেন্টস ফ্যাক্টরিতে ম্যানেজমেন্ট ট্রেইনি অথবা ইন্টার্ন হিসেবে কাজ শুরু করে। সেক্ষেত্রে একজন ম্যানেজমেন্ট ট্রেইনির প্রারম্ভিক বেতন ১০-১৫ হাজার টাকা হয়ে থেকে। এবং ২-৩ বছর পর অভিজ্ঞতা অর্জনের মাধ্যমে বহুজাতিক প্রতিষ্ঠানে উচ্চবেতনে চাকরী করতে পারে। এক্ষেত্রে অভিজ্ঞতার পরিধি বৃদ্ধির সাথে সাথে বেতন ও অতি দ্রুত বেড়ে যায়।

একজন মার্চেন্ডাইজারকে অবশ্যই স্নাতক/ স্নাতকোত্তর ডিগ্রিধারী হতে হয়।NIFT, BGMEA Institute of Fashion Technology, Shanto-Mariam University of Creative Technology (SMUCT) সহ আরো কিছু প্রতিষ্ঠান মার্চেন্ডাইজিং এর উপর স্নাতক/ স্নাতকোত্তর ডিগ্রির পাশাপাশি বিভিন্ন মেয়াদী ডিপ্লোমা কোর্সের ব্যবস্থা রয়েছে। সাধারণ স্নাতক ডিগ্রীর পাশা-পাশি এসব প্রতিষ্ঠান থেকে একটি ডিপ্লোমা করে থাকলে একটা ভালো চাকরি পাওয়া খুব সহজ হয়ে যায়।

Leave a Reply