বাড়ির ছাদে সবজি চাষ

বাড়ির ছাদে সবজি চাষ

  • উদ্যোক্তা ডেস্ক

ঠাকুরগাঁওয়ে সৌখিন চাষিরা বাড়ির ছাদে সবজি চাষ শুরু করেছেন। মিন্টু নামে এক চাষি সবজি আবাদের মতো জমির অভাবে নিজ বাড়ির ছাদে সবজির চাষ করেছেন। সবজির উৎপাদনও হয়েছে সবাইকে তাক লাগিয়ে দেওয়ার মতো। পরিবারের চাহিদা মিটিয়ে সবজি বাজারে বিক্রি করে আর্থিকভাবেও লাভবান হচ্ছেন।ঠাকুরগাঁও শহরের ঘোষপাড়া মহল্লার বাসিন্দা মিন্টু নিজ বাড়িতে টার্কি মুরগি পালন করছেন।

টার্কি মুরগি পালন করে সবার আলোচনার বিষয়বস্তুতে পরিণত হয়েছেন। এবার বাড়ির ছাদে লাগিয়েছেন শীতকালীন শাকসবজি। বেগুন, শিম, কপি, লাউ, পুইশাকসহ এমন কোনো সবজি নেই যা তিনি লাগাননি। এছাড়া বারমাসি লেবু, মরিচও চাষ করা হয়েছে ওই একই বাড়ির ছাদে। তবে বিশেষ বৈশিষ্ট্য হল সবজি বাগানে তিনি কীটনাশক বিষ প্রয়োগ করেন না। সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক উপায়ে “ফেরোমন” পদ্ধতিতে কীটপতঙ্গ দমন করছেন।

এ ব্যাপারে কৃষক মিন্টু বলেন, আমার নিজস্ব জমি জায়গা না থাকায় আমি নিজ বাড়ির ছাদে সবজির বাগান করেছি। বাগানে কীটপতঙ্গ দমনে কখনো কীটনাশক বিষ প্রয়োগ করি না। বিষমুক্ত সবজি পরিবারের চাহিদা মিটিয়ে বাজারে বিক্রি করে আর্থিকভাবে লাভবান হয়ে আসছি।

হলপাড়ার বাসিন্দা সাবিনা ইয়াসমিন জানান, বাজারে কোন সবজি নেই যেখানে কীটনাশক বিষ প্রয়োগ করা হয় না। ওইসব বিষে উৎপন্ন সবজি দেহের জন্য ক্ষতিকর। কিন্তু জেনেও আমাদের কিছু করার থাকে না। এ অবস্থায় মিন্টু ভাইয়ের বিষমুক্ত শাক-সবজি খেতে খারাপ লাগে না।

মিন্টু জানান, এতে শুধু জৈব সার ও নিয়মিত পানি সেচ দিতে হয়। কারণ, শাকসবজি ও বাগানের গাছগুলো যেহেতু সাধারণ মাটির সংস্পর্শ হতে দূরে থাকে তাই নিয়মিত পানি সেচ দেওয়া জরুরি। এ বছর বেগুন শাক, শিম বিক্রি করে প্রায় ৩ হাজার টাকা আয় করেছি। আশা করছি পুরো ছাদে মরিচ, লাউ, লেবু চাষ করবো এতে বিক্রি করে লাভবান হওয়া যায়।

মিন্টুর প্রতিবেশি ঘোষপাড়া মহল্লার ব্যবসায়ী জামান বলেন, মিন্টু ছাদে সবজি চাষ করে সবাইকে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন। তাই আমিও আশা করছি, ছাদে সবজি আবাদ করব। ছাদে সবুজ প্রাকৃতিক পরিবেশ গড়ে তুলব।

এ ব্যপারে জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপপরিচালক কে.এম মাউদুদুল ইসলাম জানান, অনেকেই বাড়ির ছাদে ফুলের টপে শোভাবর্ধনের জন্য ফুল রাখে। তবে যার ছাদে জায়গা বেশি তিনি অনায়াসে শীতকালীন শাকসবজি চাষ করতে পারেন। ঘোষপাড়া মহল্লার মিন্টু সেরকমই একজন সৌখিন সবজি চাষি। তিনি নিজের পরিবারের চাহিদা মেটাতে ছাদে সবজি চাষ করছেন।

নিজের চাহিদা মিটিয়ে অতিরিক্ত সবজি বাজারে বিক্রি করে আর্থিকভাবে লাভবান হচ্ছেন।তিনি আরো জানান, শহরের সবাই যদি নিজ নিজ বাড়ির ছাদে সবজি আবাদ করে তবে সহজে সবুজ ও বিষমুক্ত সবজি পাওয়া সম্ভব। সাধারণত ছাদে মাটির টপ ও প্লাস্টিক বস্তায় মাটি দিয়ে চারা লাগানোর পর একটু পরিচর্চা করলেই সবজি পাওয়া সম্ভব।favicon59-4

Leave a Reply