বিশ্বের সবচেয়ে লাভজনক প্রতিষ্ঠান

বিশ্বের সবচেয়ে লাভজনক প্রতিষ্ঠান

  • উদ্যোক্তা ডেস্ক

একটি প্রতিষ্ঠানের আয় থেকে স্বাভাবিক কার্যক্রমবহির্ভূত আয় এবং বিক্রি করে দেয়া সাবসিডিয়ারি থেকে আয় বাদ দিলে এর চলমান ব্যবসা থেকে প্রাপ্ত আয়ের হিসাব পাওয়া যায়। প্রতিষ্ঠানের মূল ব্যবসায়ের মুনাফা সক্ষমতা নির্ণয়ে এটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি মাপকাঠি। তাই বিশ্বের সবচেয়ে লাভজনক প্রতিষ্ঠান নির্ধারণ করতে মার্কিন আর্থিক সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান ২৪/৭ ওয়াল স্ট্রিট বহুজাতিক আর্থিক সফটওয়্যার নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ফ্যাকসেট প্রদত্ত বিভিন্ন কোম্পানির চলমান কার্যক্রম থেকে প্রাপ্ত আয় পর্যালোচনা করে। সে তথ্যের ভিত্তিতেই ২০১৪ সালে তৈরি করা হয় বিশ্বের শীর্ষ ২০টি লাভজনক প্রতিষ্ঠানের একটি তালিকা, যার শেষ কিস্তি আজ পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো:


চায়না কনস্ট্রাকশন ব্যাংক করপোরেশন

চলমান কার্যক্রম থেকে প্রাপ্ত আয়: ৩৪ দশমিক ৯ বিলিয়ন ডলার

দেশ: চীন

শিল্প: বহুমাত্রিক ব্যাংকিং

রাজস্ব: ৭৬ দশমিক ৯ বিলিয়ন ডলার

বিশ্বের অন্যতম শীর্ষস্থানীয় প্রতিষ্ঠান চীনের কনস্ট্রাকশন ব্যাংক করপোরেশন। গত বছর ব্যাংকটি ২১৪ বিলিয়ন ইউয়ানের (৩৫ বিলিয়ন ডলার) বেশি মুনাফার প্রতিবেদন দেয়। এ সময় ব্যাংকটির নেট সুদ আয় ছিল ৪০০ বিলিয়ন ইউয়ান (৬৪ বিলিয়ন ডলার)। যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে লাভজনক ব্যাংক ওয়েলস ফার্গোর চেয়ে এ ব্যাংকটি অনেক বেশি মুনাফা করে। আর অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ চীনা ব্যাংকের মতো এটিও রাষ্ট্রীয় নিয়ন্ত্রণাধীন।

গ্যাজপ্রম

চলমান কার্যক্রম থেকে প্রাপ্ত আয়: ৩৫ দশমিক ৭ বিলিয়ন ডলার

দেশ: রাশিয়া

শিল্প: তেল ও গ্যাস

রাজস্ব: ১৫৬ দশমিক ৬ বিলিয়ন ডলার

রোজনেফটের পাশাপাশি বিশ্বের শীর্ষ ২০টি লাভজনক প্রতিষ্ঠানের তালিকায় স্থান করে নিয়েছে রাশিয়ার আরেকটি প্রতিষ্ঠান গ্যাজপ্রম। এটিরও বেশির ভাগ শেয়ার সরকারের দখলে। প্রতিষ্ঠানটি দাবি করে, বিশ্বে প্রাকৃতিক গ্যাসের সবচেয়ে বড় মজুদ তাদের হাতেই আছে। বর্তমানে বিশ্বের মোট প্রাকৃতিক গ্যাসের ১৩ শতাংশ উত্তোলন করে গ্যাজপ্রম। প্রতিষ্ঠানটি আরো দাবি করে, এটির ১ লাখ ৬৮ হাজার ৯০০ কিলোমিটার লম্বা সরবরাহ নেটওয়ার্ক বিশ্বে সর্ববৃহৎ।

অ্যাপল ইনকরপোরেশন

চলমান কার্যক্রম থেকে প্রাপ্ত আয়: ৩৭ বিলিয়ন ডলার

দেশ: যুক্তরাষ্ট্র

শিল্প: প্রযুক্তি

রাজস্ব: ১৭০ দশমিক ৯ বিলিয়ন ডলার

শীর্ষ মুনাফাকারী প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে নেট আয়ের ক্ষেত্রে সবচেয়ে বেশি প্রবৃদ্ধি দেখিয়েছে অ্যাপল। ২০০৪ সালে অ্যাপলের মুনাফা ছিল ২৭৬ মিলিয়ন ডলার, আর গত বছরই তা পৌঁছেছে ৩৭ বিলিয়নে। মূলত আইফোনের প্রসারের কারণেই অ্যাপলের মুনাফায় এ ঊর্ধ্বগতি। গত প্রান্তিকে প্রতিষ্ঠানটি ৩ কোটি ৫২ লাখ আইফোন বিক্রি করে, যা এর সার্বিক ৩৭ দশমিক ৪ বিলিয়ন ডলারের রাজস্বে ১৯ দশমিক ৮ বিলিয়ন ডলার অবদান রাখে।

ইন্ডাস্ট্রিয়াল অ্যান্ড কমার্শিয়াল ব্যাংক অব চায়না লিমিটেড

চলমান কার্যক্রম থেকে প্রাপ্ত আয়: ৪২ দশমিক ৭ বিলিয়ন ডলার

দেশ: চীন

শিল্প: বহুমাত্রিক ব্যাংকিং

রাজস্ব: ৮৯ দশমিক ৪ বিলিয়ন ডলার

গত বছর চলমান কার্যক্রম থেকে নেট ৪২ দশমিক ৭ বিলিয়ন ডলার আয় নিয়ে বিশ্বের সবচেয়ে মুনাফাকারী প্রতিষ্ঠান চীনের ইন্ডাস্ট্রিয়াল অ্যান্ড কমার্শিয়াল ব্যাংক। সম্পদের দিক থেকে এটি পৃথিবীর শীর্ষস্থানীয় ব্যাংক। ১৯৮৪ সালে প্রতিষ্ঠিত রাষ্ট্রায়ত্ত এ ব্যাংকটি ফোর্বসের ২০১৩ সালের শীর্ষ পাবলিক লিমিটেড কোম্পানির তালিকায় প্রথমে রয়েছে।favicon59-4

Leave a Reply