‘ছোট ছোট লক্ষ্য ঠিক করুন’

‘ছোট ছোট লক্ষ্য ঠিক করুন’

  • লিডারশিপ ডেস্ক

সম্প্রতি অধিনায়কত্ব ছেড়েছেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। দীর্ঘদিন সফলভাবে তিনি ভারতীয় ক্রিকেট দলের নেতৃত্ব দিয়েছেন। তাঁর জীবনকাহিনি নিয়ে তৈরি হয়েছে চলচ্চিত্র। পড়ুন ‘ক্যাপ্টেন কুল’-এর জীবনদর্শন।


আমি সব সময় বর্তমান নিয়ে বাঁচতে ভালোবাসি। সবকিছুকে একটু ভেঙে ভাবতে পছন্দ করি। আমার কাছে কোনো খেলায় হেরে যাওয়াটা ভাবার বিষয় নয়। বরং ভুলটা কোথায় হলো, সেটা জানাটাই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। আবার কোনো খেলায় জিতে যাওয়াও কিন্তু সব না। বরং কোন জায়গায় উন্নতি করা দরকার, সেটা ধরতে পারাই জরুরি।

Mahendra-Singh-dhoni-birthday-2016আমি মনে করি, আপনি যখন শারীরিকভাবে ক্লান্তি বোধ করেন, তখনো কিন্তু চাইলে সামনে এগিয়ে যেতে পারেন। যতক্ষণ না আপনি মানসিকভাবে ক্লান্ত হচ্ছেন, ততক্ষণ আপনি আসলে ক্লান্ত না। আমি এখন পর্যন্ত অনেক মাইলফলক আর সাফল্যের শীর্ষ স্পর্শ করেছি, তারপরও অনেক লক্ষ্য ছোঁয়া এখনো বাকি আছে। একই সাফল্যের চূড়া তো আরও একবার স্পর্শ করা যায়। যদি কোনো স্বপ্নই না থাকে, তাহলে সামনে এগোনোর গতিটা দেবে কে? তাই আমি সব সময় বলি, শেষ পর্যন্ত কোথায় পৌঁছাতে চান, সেটা আপনার জানা থাকুক বা না থাকুক, স্বপ্ন থাকতেই হবে।

লক্ষ্যের দিকে এগিয়ে যাওয়ার জন্য স্থির মনোভাব থাকাও খুবই গুরুত্বপূর্ণ। খুব বেশি দূরের ভবিষ্যতের দিকে না তাকিয়ে ছোট ছোট লক্ষ্য ঠিক করুন। এভাবেই একটু একটু করে নিজেকে তৈরি করতে হয়, সামনে এগোতে হয়। পরীক্ষার ক্ষেত্রটা মাঠ কিংবা যেখানেই হোক, নিজের সর্বোচ্চটা দেওয়ার চেষ্টা থাকতে হয়। স্কুলে আমি যখন খেলতাম, আমার লক্ষ্য থাকত আমার জেলার অনূর্ধ্ব ১৬ কিংবা ১৯ দলে সুযোগ পাওয়া। সেখানে যখন নির্বাচিত হলাম, তখন পরের ধাপটা পেরোনোর পরিকল্পনা শুরু করলাম। ছোট ছোট লক্ষ্য ঠিক করে সামনে এগোলে অনেক দূরে যাওয়া যায়। এটাই আমার নিয়ম।

সত্যি বলতে আমি কখনো আমার দেশকে প্রতিনিধিত্ব করব, এমনটা ভাবিনি। এখন আমি দেশকে প্রতিনিধিত্ব করছি, এটা আসলে রূপকথার গল্পের মতো লাগে। তবু ‘বর্তমান সময়ে’ বেঁচে থাকার জন্য পরিশ্রম করে যাচ্ছি। আমি সব সময় কাদের নেতৃত্ব দিচ্ছি, তা নিয়ে চিন্তা করি না। বরং সামগ্রিকভাবে আমাদের লক্ষ্যটা কী, সেটাই থাকে মূল চিন্তার বিষয়।

আমি শচীন টেন্ডুলকার আর অমিতাভ বচ্চনের কাছ থেকে অনুপ্রেরণা নিই। জীবনের নানা পর্যায়ে তাঁরা সমস্যা-প্রতিবন্ধকতা দেখেছেন, তারপরও সফল হয়েছেন। একটা ব্যাপার লক্ষ করে দেখবেন, এই মানুষ দুজন তাঁদের জীবনের সব ক্ষেত্রেই ভীষণ বিনয়ী আর নম্র। আমার কাছে সফল হওয়ার জন্য বিনয়ী ও নম্র হওয়াটাই সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ মনে হয়।

ms_dhoni_paintঅনেক তরুণ মহেন্দ্র সিং ধোনি হতে চান। আমার কাছে মনে হয়, কঠোর পরিশ্রম ছাড়া এগিয়ে যাওয়ার বিকল্প নেই। সবকিছুকে সরল ভাবতে পারাটাই এগোনোর সাহস জোগায়। তবে সামনে এগিয়ে যাওয়ার জন্য একটু ভাগ্যেরও সহায়তা প্রয়োজন। পাশাপাশি আপনি কোন ক্ষেত্রে ভালো তা আপনাকে জানতে হবে। সেটা ক্রিকেটে হোক, অন্য কোনো খেলায় হোক, কিংবা পড়াশোনায় হোক। আপনি যদি পড়াশোনায় ভালো হন আর ক্রিকেট খেলতে চান, তাহলে আপনাকে অন্যদের চেয়ে বেশিই পরিশ্রম করতে হবে। না হলে আপনি লক্ষ্য স্পর্শ করতে পারবেন না। জীবনে আপনাকে সবকিছুর ভারসাম্য রক্ষা করে এগিয়ে যেতে হবে। বাস্তববাদী হোন। আপনি যে বিষয়ে ভালো, তা জেনে তার জন্য ঠিক পথে ঠিকভাবে পরিশ্রম করুন। সাফল্য ধরা দেবেই।

সূত্র: প্রথম আলোfavicon59-4

Leave a Reply